শুভ্রনীল!

ভেবেছিলাম তোমার জন্য কত্তো কিছু করবো।

তোমার জন্য একটা আকাশ বানাবো,

সেই আকাশের গায়ে মেঘ ভাসাবো,

মেঘে মেঘে সংঘর্ষে বৃষ্টি ঝরবে,

বৃষ্টির শীতল স্পর্শে শিহরণ জাগবে!

 

জানো শুভ্রনীল! আমি আরও ভেবেছিলাম

তোমার জন্য একটা সমুদ্র বানাবো,

সেই সমুদ্রের বুকে ঢেউ তুলবো,

ঢেউয়ে ঢেউয়ে সংঘর্ষে জলোচ্ছ্বাস হবে,

জলোচ্ছ্বাসের স্রোতে ভাসবে!

 

অথচ এই এক জীবনে এসবের কিছুই হলো না।

তোমার জন্য কিছু করা হলো/হবে না আমার,

এ কথা ভাবতেই চৈত্রের তপ্ত রোদে মাঠ ঘাট কাঠ-

ফাটার মতো ফেটে চৌচির হয়ে যায় আমার হৃদয় ভূমি!

সাইক্লোন জলোচ্ছ্বাস কিংবা কালবৈশাখীর-

ভয়ঙ্কর প্রলয়ঙ্কারী তাণ্ডবের মতো,

আমার উঠানে চলে ব্যর্থতার নিত্য তাণ্ডব।

 

ছবি-আমার

২৫৪জন ৭২জন
0 Shares

৩০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য