আমরা কাঠের ঢেঁকি

রাফি আরাফাত ১২ জানুয়ারী ২০২০, রবিবার, ১১:৩২:২২অপরাহ্ন অন্যান্য ১০ মন্তব্য

অটোরিকশা চালককে যদি বাস চালাতে দেওয়া হয় তাহলে কি হবে বলেন তো? বাস হয়তো স্টার্ট হবে,কিন্তু চলবে না,অথবা চললেও তার অস্তিত্ব রাস্তায় আর খুঁজে পাওয়া যাবে না। আমাদের শিক্ষাব্যবস্থার ঠিক এই অবস্থা। সারাজীবন যে পড়াশোনা করলো বাংলা নিয়ে,সে হলো স্কুলের ইংরেজি ডিপার্টমেন্টের সিনিয়র শিক্ষক। পড়াশোনা করলো কমার্স নিয়ে, ক্লাস নিচ্ছে এখন পদার্থবিজ্ঞান।

আচ্ছা যে সারাজীবন সমাস,বাক্য,শব্দ নিয়ে অধ্যয়ন করলো,সে কি দিয়ে Transformation of sentence বুঝাবে? দেশের বার্ষিক আয়ের হিসাব করা ছেলেটা আইন্সটাইনের আপেক্ষিকতা কি বুঝবে?

এসবের কারনে দেখা যাচ্ছে, দেশের শিক্ষাব্যবস্থায় দুটি পক্ষ তৈরি হয়েছে। একটি হলো গাইড বুক বিক্রেতা পক্ষ,আর একটা হলো সেই গাইড বুক ক্রেতা পক্ষ। ক্রেতা পক্ষ কিন্তু অন্য কেউ না,আমাদেরই শিক্ষক মশাইরা।

যেখানে একজন শিক্ষক প্রকাশ্যে গাইড বই হাতে নিয়ে ক্লাসে ঢুকে লেকচার দিচ্ছে, সেখানে শিক্ষার্থীদের আর কি করার? হয় তাদেরও প্রত্যেকের মাথায় গাইড বুক খুলার মানসিকতা কাজ করবে, নয়তো এই স্যার গাইড বই ছাড়া পড়াতে পারে না এই মানসিকতা নিয়ে ক্লাস শেষ করবে। যেটাই ভাবুক না কেন, শেখা কিন্তু কিছু হলো না,তাতে কি,মাস গেলে বেতনের চেক তো সরকার দিচ্ছে।

অন্যদিকে গাইড বিক্রেতারা কি করছে, তারা আরও উৎসাহিত হচ্ছে, আরও বেশি বেশি প্রোটিন, স্নেহ, ভিটামিন তাদের গাইডের মধ্যে যোগ করছে,ফলে শিক্ষার্থীরা সেগুলো গিলে খাচ্ছে, আর পরিক্ষার খাতায় তা বমি করে দিয়ে জিপিএ ৫ প্রাপ্ত কৃতি শিক্ষার্থী রুপে ঘুরে বেরাচ্ছে। কিন্তু গাইডের বাইরে কিছু জিজ্ঞেস করলেই, I am GPA 5 হয়ে যায়।

এভাবে চললে দেশ অনেক জিপিএ ৫ পাবে,অনেক ভালো ফলাফল পাবে, কিন্তু বিশ্বাস করেন, দেশের কাজে একটাও আসবে না। এরা দেশের সর্বোচ্চ ফলাফল করেও জানবে না আমাদের বিজয় দিবস কি,জানবে না স্বাধীনতা দিবস কবে, দেশের নাম গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ এইটাও জানবে না। এমন শিক্ষিত জাতি দিয়ে কি করবো,তার চেয়ে বরং ১০০% অশিক্ষিত জাতি গড়ে তুলা ভালো, অন্তত বলতে তো পারবো আমরা অশিক্ষিত, কিন্তু শিক্ষিত হয়ে অশিক্ষিতদের মতো উত্তর দিলে ব্যাপারটা কেমন না!

১৭৪জন ১০০জন
4 Shares

১০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য