আমার ব্যাক্তিগত অভিমত,
আজকাল মেয়েরা আন্দোলনে নেমে এই যে বলছে একটা জিন্স পরা মেয়ে তো তার শালীনতা বজায় রেখে চলে এ কথাটা বড্ড বেমানান। এখনকার যে জেনারেশন তাতে আপনি যখন জিন্স, টপস পরে বের হবেন তখন আপনারই পাশে থাকা বোরকা পরা মেয়ের থেকে প্রথম দৃষ্টি আপনার উপরই পরবে। স্বাভাবিক ভাবে আমরা প্রত্যেকেই চাই সবার দৃষ্টি আমার উপর পরুক। এখন আপনি যখন এভাবে চলাফেরা করেন তখন একজন ভালো মানুষের চোখও আপনার উপরেই থাকবে। তার আচরণ মানসিকতা ভালো থাকলেও সেই মুহূর্তে আপনাকে দেখে মোহে আচ্ছন্ন হয়ে তার ভিতর একটা লালসা কাজ করবে। পরবর্তীতে তার আচরণ নিম্ন বিকৃত মস্তিষ্কের মতো হয়ে যাবে। আর একটা মানুষের খারাপ হতে খুব বেশি সময়ের প্রয়োজন নেই। ঠিক এখন যখন একটা বোরকা পরা মেয়ে তার পাশ দিয়ে যাবে তখন দেখবেন না চাইলেও দৃষ্টি যাবে। ঐ যে একজন ভালো মানুষের মস্তিষ্কও খারাপ হতে থাকবে। তবে হ্যাঁ, সব বোরকা পরা মেয়ে যে খুব ভালো হয় সেটাও না। এখন বোরকা, পর্দা এসব ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে।
কাজেই ইসলাম আপনাকে বলেছে ঢিলে-ঢালা পোশাক পরিধান করতে যেন আপনার দেহের গঠন বোঝা না যায়। দেখতে দৃষ্টি কটু না হয়। বোরকাই হোক বা থ্রি-পিস যাই পরবেন সেটার মধ্যে শালীনতা বজায় থাকবে। জিন্স পরলে কতটা শীলনতা থাকবে আপনারাই ভালো জানেন। তাই আলেমদের দোষারোপ করতে যাবেন না। যদি ইসলামের দিকটা ভাবতেন তবে আজকে সমাজটা এমন রসাতলে যেত না। এমন পশুত্ব মানসিকতার মানুষও জন্মাত না। আল্লাহ আমাদের সবাইকে হেদায়েত দিক।

  1. (বি.দ্র: কাউকে উদ্দেশ্য করে বলা হয়নি। ভুল হলে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন)
১৭৫জন ৮১জন
0 Shares

৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ