আধখানি চাঁদের বনে।

রিতু জাহান ৫ মে ২০১৭, শুক্রবার, ১২:৫৬:১৮পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ১৬ মন্তব্য

আজ এ পথে পিছনের যতোশতো নিঃসঙ্গ মুহুর্তের বিচিত্র ছবিগুলো ভেসে উঠছে
তন্ময় হয়ে বসে ভাবছি, সেই সব অনাবিষ্কৃত গভীরতায় আমি তখন ঢুকে দেখিনি,
আজ এক্ষণে, দেখছি তাকে, শিখছি তাকে।
অধরা সে সময়গুলো আমার, যা মুহূর্তের মধ্যে পালিয় গেছে তা সে আমার চোখের কোনে উজ্জল মুক্তো।
সেই অনাবিল দৃষ্টিটুকু খুঁজি এখন।
আজ রাতের এ বাঁকা আধখানি চাঁদের আলোর পথ ধরে,
তোমার ঘাসবুকের উষ্ণতা নিব, সে এক অলীক স্বপ্ন মোর।
এ ক্ষণটা এখন মোর অতীতের মতো,
অনঢ় অটল নিঃশ্বব্দে বসে আছে বই এর পাতায়।
অসাড় এ মনটাকে বর্তমানের মোহোচ্ছন্ন কারাগির থেকে ছিনিয়ে ঐ বনে যাব,
প্রতিষ্ঠা করব এক স্বর্গ।
দিনের আলোর যে পথ ধরে তুমি চলে গেছো পলক ফেলতেই,
তাতে এক পশলা বৃষ্টির শীতল পরশ ছিল।
যৎসামান্য সে শীতল পরশে ব্যাকুল হয়েছি
কিছু তা তুলে রেখেছি আঁচলের তলে, বই এর পাতায়।
এ রাতে তুমি নেই পাশে,
বই এর পাতায় শব্দের অতল গভীরে তুলে রাখা সে শীতল পরশ তুলে এনেছি।
তোমার এ শীতল পরশে প্রশান্তির আশ্বাস আছে, আছে এক নিরাপদ আশ্রয়।
তুমি ঘুমাও, ঘুমিয়ে পড়ো
কিছু সেই মুক্ত ঘাম ঝরার ক্লান্তিতে,
আমি জাগি, জেগে থাকি চাঁদের আলোয়, বই এর পাতায়, নির্জন এ বনে।
রাতের নির্জনে গা ঘেসে যে পাখি ডেকে যায়,
তাকে বলি,” একটু বসে যাও
সে বলে, তাড়া আছে বেশ,
মেঘের বলো, ছুঁয়ে যাক তোমায়।”
আমি জাগি ভোর হয়, অনিদ্রায় ভোগা এ চোখ ভোরের শিশিরের ফোটার পরশে ভারী হয়,
চোখ মুজে আসে।
,,,,,,মৌনতা রিতু,,,,,
৪/৫/১৭.

৪০৯জন ৪০৯জন
0 Shares

১৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ