আজব না?

হিমু ভাই ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার, ০২:৫৬:৫০অপরাহ্ন রম্য ১৬ মন্তব্য

হুমায়ুন আহমেদ একটা কথা বলেছিলেন, কথাটার মূলভাব হলো : ‘অধিকাংশ মেয়েরা খুশি হলে সেই খুশি তারা প্রকাশ করে না ।’

এক জীবনে এই কথাটার প্রমান অসংখ্যবার পাবেন । আমি যখন ইন্টারমিডিয়েট পাস করলাম, এক বান্ধবী আমাকে জিজ্ঞেস করেছিল:

– ‘হিমু কি পয়েন্ট পেয়েছো?’

– ‘এই টেনেটুনে পাস করলাম । কিন্তু ইংলিশে একটুর জন্য ফেল করতে করতে বেঁচে গিয়েছি, তবুও আলহামদুলিল্লাহ ।’

– ‘আল্লাহ্‌ তাই? আমারোও ইংলিশে রেজাল্ট খুব খারাপ আসছে জানো! এজন্য মনটা খারাপ ।’

আমি ইংলিশ ফার্স্ট পেপারে ৩৬ পেয়েছিলাম, মানে ফেল করতে করতে পাস করলাম । মেয়েটা বললো তারও ইংলিশে খারাপ রেজাল্ট এসেছে, ভাবলাম সেও হয়তো ৩৪- ৩৫ পেয়ে কোনোমতোন পগারপার হয়েছে আমার মতোন । কৌতূহলবশত জিজ্ঞেস করলাম, কত পেয়েছ ইংলিশে শুনি?

সে মনটা খারাপ করে, গলার স্বরে দুনিয়ার সমস্ত বিষণ্ণতা ঢেলে দিয়ে, স্লো মোশানে উত্তর দিলো, ইংলিশ ফার্স্ট পেপারে ৭৯, সেকেন্ড পেপারে ৮৩ ! আই রিপিট ওয়ান সেকেন্ড, ফার্স্ট পেপারে ৭৯, সেকেন্ড পেপারে ৮৩ !

কিছুক্ষনের জন্য নিজেকে ছাগলের তিন নাম্বার বাচ্চা মনে হলো । প্রায় ১০ সেকেন্ড পর্যন্ত আমি কোমায় চলে গেলাম । অজ্ঞান হতে হতেও হলাম না । কোমা থেকে ফিরতেই হুমায়ুন আহমেদের কথাটা মনে হয়ে গেলো । ‘মেয়েরা খুশি হলে সেই খুশি তারা প্রকাশ করে না ।’

গতকাল সকালেও লিষ্টের একজন মেয়ে ইনবক্সে জিজ্ঞেস করলো:
– ‘কোন সাব্জেক্টে অনার্স করবেন ভাবছেন?’
– ‘রাষ্ট্রবিজ্ঞান, আপনি?’
– ’ইকোনোমিকস । আসলে আমার রেজাল্ট ভালো আসেনি, তাই ।’
– ‘কত পয়েন্ট SSc আর HSc’তে মিলিয়ে?’
– 8.81

নিজেকে আবারোও এই গ্রহের সবচে বড় ভক্সোদ মনে হলো । ভূল গ্রহে জন্মগ্রহণ করে ফেলেছি বোধহয় । এই গ্রহের কোনো মেয়ে খুশি হলে সম্ভবত সেই খুশি তারা প্রকাশ করে না । অথচ আমি বিশ্ব হাবলা 6.85 নিয়ে বলি, আলহামদুলিল্লাহ, যা আছে খুশি ।

অদ্ভুত না?

১১৪জন ৩০জন
5 Shares

১৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য