আগমনী গোধূলি

প্রদীপ চক্রবর্তী ২৫ জুলাই ২০২০, শনিবার, ০৮:৫২:৪২অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ১৭ মন্তব্য

স্নিগ্ধ সুন্দর শ্রাবণের রাতে পেরিয়ে,
মন উদাসী শরতের কাশফুলে একে একে ভেসে আসে
আগমনী গন্ধ।
অপেক্ষায়মান শরতে
তুমি চাইলে আগমনী হয়ে আসতে পারো।
কচিকাচা ঘাস জুড়ে শিশির
আর শান্ত নদীতে বহতা স্রোত।
শিশিরে শিশিরে গন্ধ,পুষ্পের সমাহারে তুমি বেড়ে ওঠো।
গঙ্গার ঘাটের হংসমিথুন খেলিছে মন আপনমনে, চন্দ্রগ্রস্ত উদাসী স্বপ্ন বুননে।
কেবলি দুঃখ, ব্যাধি, জ্বরা তাড়নার ভরসাতে।
সময়াভাবে নদীও ভুলে যায় তার চলার গতিপথ।
তখন সাগরের হৃদয়ে ভূগোল এঁকে যায় মানচিত্র।
তুমি ভুলে যেতো পারো,
কিন্তু ইতিহাস তা হৃদয়ে ধারণ করেছে।
মনে রেখো শরৎ আসতে এখনো ঢের দেরী।
তবে শরতের গর্ভে আগমনী গন্ধ প্রস্ফুটিত।
তুমি চাইলে আগমনী হয়ে সাজতে পারো।
ঝরাপাতার বুকে এঁকে দাও নন্দনফুলের আগমনী বাহার।
তুমি প্রকৃতি কামিনী,
সুধাময় আগমনী গন্ধে তুমিই রাগিণী।
মেঘমালারাও ভিড় করে
দিনশেষে ফেরারি বিকেলে।
শরৎ ছোঁয়ায় রাই সেজে অঙ্গে তুমি
মাখো সন্ধ্যারতির ধূপের গন্ধ।
অন্তরে কালো নিশিযাপনের আর্তনাদ।
শতাব্দী আসে শতাব্দী যায়,
আমি চাহিয়া থাকি আগমনীর ছায়াবীথিতে।

৫৮৯জন ৪৮১জন
0 Shares

১৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য