আকাশ তোমার আমার

আনন্দধারা বহিছে ভুবনে ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৫, শনিবার, ১২:১৯:৫৯পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৫০ মন্তব্য

কবি এখনো আসেননি
মুল কবি আসার পুর্বে ‘ আসমানীরে দেখতে যদি তোমরা সবে চাও’,’ বাবুদের তাল-পুকুরে হাবুদের ডাল-কুকুরে’, ‘ আমি হব সকাল বেলার পাখি ‘, ‘ নন্দলাল তো একদা একটা করিল ভীষণ পণ ‘, ‘ ঐ দেখা যায় তাল গাছ ঐ আমাদের গাঁ ‘ এসব মিউজিক ইনসট্রুমেন্ট গুলো সাউন্ড সিস্টেমে সমন্বয় করা হচ্ছে।
হঠাৎ ছন্দ পতন,শব্দযন্ত্র গুলো কোন কারনে বন্ধ হয়ে যায়,হেঁড়ে গলায় ভেসে আসে।হেঁড়ে কন্ঠকের নাম জানা যায়নি।

তোমার একটাই আকাশ আমারো
তোমার বিশাল সে আকাশে আছে নীল
মেঘ বৃষ্টিতে ভিজে যায় পাহাড় অরণ্য
সমুদ্র  স্ফীত হয় স্বচ্ছ ফোটায়
লবণাক্ততা দূরীভূত হয় কিছুটা
পাখি ওড়ে
অতিথি পাখি পাড়ি দেয় হাজার মাইল
ফিরে যায় আবার সব,কিছু খাঁচায় থেকে যায়
ভেজে দেহ ভেজায় মন পথিকেরা
পায় প্রাণ সোনালী ফসলেরা, হেসে ওঠে
তীব্রতায় ছাতা মেলে নিজেকে বাঁচায় জনা কতক
মেঘে ছায়া নেয় ক্লান্ত পথিক।

আমার ক্ষুদ্র আকাশে নেই মেঘ
দক্ষিণা বারান্দায় যতটুকু দেখা যায় ঠিক ততটুকুই
আছে শুধুই নীল।

অতঃপর
পাশের চেয়ারে বসা অচেনা মানুষটির অস্ফুট উচ্চারনঃ
‘ সব শালা কবি হবে
পিপিলিকা গোঁ ধরেছে উড়বেই
বন থেকে দাঁতাল শুওর
রাজ আসনে বসবেই।… ‘

 ব্লগে এই মুহূর্তে অবস্থান নেয়া বিপদজনক, পঁচা ডিম আজকে বাজার হতে কোন কারনে উধাও।এই লেখা পড়ে যদি কেহ মন্তব্য করেন তবে উপরের চার লাইন থাকবেই মন্তব্যে জানি আমি 🙂

৩৭০জন ৩৭০জন
0 Shares

৫০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ