ফেসবুকে ইতালিফেরত প্রবাসী এক বাঙালিকে দেখলাম ভিডিওতে চিল্লায় চিল্লায় বলছে- ফাক ইউ!! ফাক ইউ মাদারল্যান্ড!!

হাতেগোনা কয়েকজন বাদে অসভ্য ইতর শ্রেণীর এইসমস্ত লোক একটি লকডাউন কাউন্ট্রি থেকে দেশে এসেছে মূর্খের মত। অথচ একবারও এদেশের জনগনের কথা, তাদের পরিবারের কথা মাথায় আনেনি! দেশে আসলে কোয়ারিন্টাইনে থাকতেই হবে এটাই নিয়ম তা তারা মানতে চাইছেনা। এরাই হুন্ডির মাধ্যমে দেশে অবৈধভাবে ফাঁকি দিয়ে অর্থ পাচার করে আর দেশে এসে ফোরটুইন্টি দেখায়!

দেশে নতুনভাবে দু’জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন যাদের একজন ইতালী অন্যজন জার্মান ফেরত প্রবাসী। এই মূহুর্তে দেশে অন এরাইভাল ভিসা বন্ধ এবং যুক্তরাজ্য ছাড়া করোনার প্রকোপ বেশী এমন দেশ থেকে যাত্রী আসাযাওয়া বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার যা আরও দু’দিন আগে নিলে আজ কিছু অসভ্যদের দেখতে হতোনা।

করোনাভাইরাস এখন পর্যন্ত ৩৮০ বার তার নিজের গঠন পরিবর্তন করেছে। যার ফলে সুনির্দিষ্টভাবে কার্যকরী ওষুধ এখনো আবিস্কার করা যায়নি। করোনাভাইরাসকে এ শতাব্দীর সবচেয়ে অসভ্য এটাকিং ভাইরাস বলা হচ্ছে।

তবে আশার বাণী হচ্ছে এদেশে করোনাভাইরাস তার গঠনপ্রকৃতি পরিবর্তিত করতে ইচ্ছুক হবেনা বলে মনে হয়! একইরকম থাকবে। তখন করোনা ছড়িয়ে পড়বে আরও সহজভাবে। কারন সে আশেপাশে তাকিয়ে দেখবে তার চেয়েও অসভ্য হচ্ছে বিদেশফেরত বাঙালিদের মনস্তাত্ত্বিক গঠনপ্রকৃতি, যা আরও ভয়াবহ।

অথচ বিদেশে মাথারঘাম পায়ে ফেলে কষ্ট করে কর্ম করা অমানুষগুলি আজ নিজের দেশের সামান্য অব্যবস্থাপনাকে মেনে নিতে পারছেনা বলে গালিগালাজ করছে। সেইসব মানুষ কি করে হোম কোয়ারান্টাইনে থেকে নিজেদের পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখবে যাদের এত কলুষিত মন? নিজেদের এবং পরিবারের সদস্যদের পরিচ্ছন্নতা তারা নিজেরাই রাখতে পারবে কিনা সেটাই প্রশ্নবিদ্ধ! তাদের সাথে যারা মিশবে তারাওতো ঝুঁকিতে থেকে যাবে।

হ্যা, এটা হতে পারে যে তারা একধরনের আতঙ্ক থেকে এমনটা করেছেন। কারন সাথে অনেক শিশু রয়েছে এবং আশকোনা হজ্জ ক্যাম্পে জীবনযাপনের মান উন্নত নয়। কিন্তু তাদের বুঝতে হবে এটা উন্নত ইউরোপ নয়, বাংলাদেশ। ইতালিফেরত প্রবাসীদের প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে ছেড়ে দেয়া হয়েছে এবং তাদের সরকারি তত্বাবধানে হোম কোয়ারিন্টাইনে রাখা হবে। কিন্তু এদেশে হোম কোয়ারিন্টাইন কতটা কার্যকরী এবং ফলপ্রসূ হবে তা ভাবনার বিষয়।

তারা যদি এতই ভালো চাইতো তাহলে এদেশে নিজেরা এক একটি করোনার এটোমবোমা হয়ে আসতোনা। এরা তারাই যারা প্রবাসে গিয়ে এদেশকে, দেশের মাটিকে ভালোবাসে আর দেশের সামান্য ত্রুটিবিচ্যুতিতে ধিক্কার জানায়। বলি বিদেশে যারা এত কষ্ট করে দেশে এসে কি তারা লাটসাহেব হয়ে যায়?

সব সহ্য হয়, বাংলাদেশকে কেউ গালি দিলে রক্ত টগবগ করে ওঠে। তাদের জন্য করোনা নয় আর্মির ডান্ডিই হচ্ছে উপযুক্ত অস্ত্র। অসভ্যের দল!!

১৮৫জন ২৫জন
27 Shares

২৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য