অশ্রুসিক্ত হৃদয়

শুভ মালাকার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০১৬, রবিবার, ০২:১৫:৪৪অপরাহ্ন কবিতা ১৬ মন্তব্য

অশ্রুসিক্ত হৃদয়
-শুভ মালাকার

তখন আমি খুবই ছোট্ট,
পুতুল নিয়ে বসি আঙ্গিনায়।
ঠিক তখনি, ভাই-আমার মাকে বলে,
আসি মা ডাকছে বন্ধু মোরে।

মা বলে-
কোথায়, কেন ডাকছে বাছা?
ভাই বলে, আমারি অন্ন কাড়িছে অন্যে,
সেই অন্ন আনিবে সে ছিনিয়ে।
সেতো অন্ন নহে মা, সেযে আমার ভাষা,
দোহাই মা তোমার যেতে হয়োনা বাঁধা।

তবুও বাছা কোথাও যাসনে তুই,
কবে কোথায় কি জানি-হয়!
আসিব মা ফিরে, যেভাবে আছি,
মাগো, করনা কোনো ভয়।

আমি শুধু শুনেই গেছি সেদিন,
বুঝতে পারিনি কি ঘঠছে সেথায়?
এভাবে পাড় হয়ে গেল বহু দিন,
হঠাৎ একদিন বলি মা, বাইয়া কোথায়?
কেঁদে ওঠে মা আমার!

বলি মা, কাঁদছো কেন?
বলে, সেই যে গেল সোনা আমার,
দূড় দেশে পাড়ি-ই দিল আর আসল না।
হয়তো একুশের আকাশে হয়েছে বিলিন,
বাংলা জলে স্থলে হয়েগেছে লীন।
কখনো সে আর আসবে না।
এ কি বলছ মা!

বর্ষার অমিত মেঘের ন্যায়,
মাথায় যেন বজ্র পড়ে মোর।
মা সান্তনা দিয়ে বলে আমায়,
ভাষা ফেরাতে হয়েছে সে চির অমর।
কাঁদিসনে, এখনো আছে লক্ষ ভাই তর।

তবুও ভাবি সুগভির কূপে যেন পড়ি,
বেঁচে থেকেও ভাইকে রাখতে পারিনি।
সঙ্গী হীনে কি-ই বা হবে আর বেঁচে, যেথায়;
প্রাণ প্রিয় ভাই আমায়, ছেড়ে চলে গেছে।

৭-১০ জানুয়ারি, ২০১১

৪৯০জন ৪৯০জন
0 Shares

১৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ