অলীক

খাদিজাতুল কুবরা ৭ এপ্রিল ২০২১, বুধবার, ১২:১৯:১১পূর্বাহ্ন কবিতা ১০ মন্তব্য

তুমি যদি আমার হতে,
যখন বাহির থেকে আসতে,
কবি নির্মলেন্দু গুণের নায়িকার মতো শুধু ঘরের দরজা নয় মনের দরজাও খুলে দিতাম।
ঘর্মাক্ত ক্লান্ত তোমায় গরম জলে স্নানের আদেশ দিতাম।
ততক্ষণে এক কাপ লেবু চা তৈরি করে অপেক্ষা করতাম।
তারপর তোমার কর্মক্লান্ত দিনের সাফল্যের কথা শুনতাম।
তুমি যদি আমার হতে,
সকালে তোমার কাজে যাওয়ার আগ মুহূর্তে শার্টের দুর্ভাগা ছেঁড়া বোতামটা সেলাই করে দিতাম।
তুমি যখন ঝুঁকে পড়ে আমার চুলের মাদকতায় হারাতে চাইতে,
একছুটে পালিয়ে গিয়ে তোমায় রাগিয়ে দিতাম।
হুতোম পেঁচা সেজে তুমি বেরিয়ে যেতে,
দিনের বাকী অংশটা কাটতো আমার ছটফট করতে করতে, তোমার ফেরার অপেক্ষাতে।
প্রিয় রঙের শাড়িটা পরে একটু কাঁজল আঁকতাম চোখে।
ফিরে এলে তুমি আমি একসঙ্গে কফি হাতে বসতাম প্রিয় বারান্দাতে।
কথা বলতাম শখের গাছগুলির সাথে।
বলতাম তোরা কি জানিস বাবুর রাগ ভাঙাতে পারি আমি এক ছুটকিতে।
ফের শুরু হতো ঝগড়া টম এন্ড জেরির খুনসুটিতে।
সবই হতো হতচ্ছাড়া ‘যদি’ না থাকলে।
সময় কাটাই একলা নিরবধি।
চায়ের কাপে ও চুমুক দেই তবে পানসে ঠেকে।
তাই একাই,
বারান্দার গাছের সাথে কথা বলি রোজ বিকেলে।
তবে তুমি থাকোনা,
সে আলাপচারিতার প্রাক্কালে

০২/০৬/২০২০ইং

১৯৫জন ৪জন
0 Shares

১০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য