অলিখিত কড়চা//

বন্যা লিপি ২১ জুন ২০২০, রবিবার, ০৩:০১:০১পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৭ মন্তব্য

 

ঘুমহারা দিশাহীন বোধ নিয়ে ফানুস ওড়াই কালো আকাশে! বারান্দার গ্রিলে চিবুক রেখে নক্ষত্র গুণে গুণে পিছলে সরে যাচ্ছে পূব থেকে পশ্চিমে শুকতারা’র শরীর। ঘাড়-বাঁকিয়ে ঝুলে থাকে হাত পায়ের ঝুলন্ত কাঠামো। ভোর আসবে পূবে! মাথা হেলে আছে পশ্চিমে। সুর বেজে ওঠে বিউগলে আচমকা! কেউ বুঝি অলক্ষ্যে চলে গেলো। বিউগলের আওয়াজ ঢাকার চেষ্টায়, থালা বাটি পেটানো হলো দেদারসে; শেষাবধি আমার কানে এসে আছড়ে পড়লো বিউগলের গোপনসুরের বাজন; কারো একটা পৌঢ় শরীর ছেড়ে দিয়েছে সমস্ত যুদ্ধ লড়ার শক্তি। চলে গেলেন নক্ষত্রের পথ বেয়ে অজানা কড়চার খবরে।

যাবতীয় হিসেবের খেরোখাঁতায় কতক হিজিবিজি দাগকাটা চিহ্ন! কড়ি বলতে আঁচলের গিরায় সঞ্চিত খুচরো কিছু ঝকঝকে চারআনা মুদ্রার ভরসা।

প্রতিদিন কেউ চলে যাচ্ছে, কারণ- অ-কারণেই শিরোনাম হয়ে উঠছে তালিকায়। নাগপাশে ঢের দ্রুততার ঢেউ এসে ঝাপটা দিয়ে যাচ্ছে। দুহাত দূরেই অবস্থান নিচ্ছে ব্যারিকেডের বাঁধা। কেউ নাম্বারের প্রতীক্ষায় আতঙ্কিত প্রার্থনায় ভিজিয়ে যাচ্ছে পবিত্র জমিন।

দ্বিপ্রাহরিক মৌনতায় কুকুরেরাও ভুলে গেছে পাহারা দেবার দায়িত্ব।

আজকাল আর গোছানো হয়ে ওঠেনা কোনোকিছু। কিচ্ছু না…..মরামাছের চোখে ফ্যাকাসে রক্তের রেখা। অগোছালো কাপড়ের স্তূপে তেলাপোকাও আশ্রয় খোঁজে। অজস্র বেখেয়ালি শব্দের জঞ্জাল রেখে রেখে তাকিয়ে থাকা শূন্য চোখে।

চলে যাচ্ছে কেউ কেউ……চলে যাবে অনেকেই…….চলে যাবো আমিও। বারান্দার গ্রিলে মাথা রেখে নক্ষত্র দেখছি আজ নিশীথে……কাল হয়তো কেউ থালা বাটি চামচ পিটিয়ে ঢেকে দেবে শোকের বিউগল!

চাপা পরে যাবে প্রৌঢ় শরীরের যুদ্ধে হেরে যাবার ঘোষণা!

#নোট:একটা গোপন খবর কই তোরে শোন!

-বলো

★’—‘ চলে গেলেন

–ইন্নালিল্লাহি… সত্যি?

★ হুমম….প্রচার হতে দেয়নি।

–কেন? লুকোবার কি আছে?

★ তুই কি বোকা? প্রধান সভাপতির নির্দেশ ছাড়া কারো জো আছে ঘরের খবর বাইরে যাবে?

—আজব তো!

★ হুমম…

বি.দ্র. ধন্যবাদ আপনাকে, এলোমেলো কড়চা কষ্ট করে, ধৈর্য ধরে পড়লেন বলে।

৩০৫জন ১৭৩জন
0 Shares

২৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য