অর্পিতা ১২

সঞ্জয় কুমার ১ জুলাই ২০১৪, মঙ্গলবার, ১২:২৪:৪৬পূর্বাহ্ন গল্প, সাহিত্য ১৭ মন্তব্য

জয় টেবিল ছেড়ে উঠে যাওয়ার সময় পিছন থেকে হঠাৎ একটা কোমল হাত তার বাহু ছুঁয়ে গেল ।

কোথায় যাচ্ছেন আমাকে একা রেখে?

আপনি না বললেন ?

আমার কথাটা পুরোটা তো আগে শুনুন
পৃথিবীর সব ছেলে এক রকম কিন্তু আপনি পৃথিবীর সব ছেলের মত নন । আপনার সাথে আমার তিন মাস যোগাযোগ নেই । কিন্তু আমি এই তিন মাসে আমি আপনার সব খবর রেখেছি । এই ব্যাপারে আমাকে সাহায্য করেছে মিলন ভাইয়া । আমি জেনেছি একটা অলস ছেলের কর্মঠ হয়ে ওঠার গল্প । হঠাৎ করে পাল্টে যাওয়া একটা ছেলের কথা । যে আমার জন্য এত কিছু করতে পারে তাঁকে আমি কিভাবে ফিরিয়ে দেব!!

আপনি কিভাবে বুঝলেন আমি এ সব আপনার জন্যই করছি?

জয় বাবু মেয়েদের একটা ৬ষ্ঠ ইন্দ্রিয় আছে তাঁরা পুরুষের দৃষ্টির ভাষা বুঝতে পারে । সব কথা মুখে বলে দিতে হয় না কিছু কথা চোখের ভাষায় বুঝে নিতে হয় ।

মিলন:
অনেক হয়েছে আর না এবার মিষ্টি মুখ হয়ে যাক । বৌদি আপনারা বসুন আমি মিষ্টি নিয়ে আসছি । আর একটা ব্যাপার আজ থেকে আর আপনি আপনি নয় শুধু তুমি ঠিক আছে ।

অর্পিতা আমি আজ সত্যিই অনেক সুখী । সুখী হতে আমার আর কিছু চাইনা যদি শুধু তুমি আমার পাশে আজীবন থাক ।

কিন্তু সেটা তো এখন হচ্ছে না জনাব আমি এখনই বাড়ি চলে যাব নয়ত রাত হয়ে গেলে মা বাবা টেনশন করবেন । মায়ের তো টেনশন করতে একেবারে ই নিষেধ করেছে ডাক্তার । আজ তাহলে উঠি । মিলন ভাই ভাল থাকবেন আর আপনার বন্ধুর দিকে একটু খেয়াল রাখবেন ।

সেটা তো আর এখন শুনব না বৌদি এই চার বছর আমি দেখে রেখেছি এখন আপনার পালা ।

জয়:
অর্পিতা সাবধানে বাড়ি যেও । বাড়ি পৌছে অবশ্যই আমাকে ফোন দিও নয়ত কিন্ত আমি টেনশন করব ।

ঠিক আছে । টেক কেয়ার ।

জয় আজ অনেক খুশি । তার এই ছোট্ট জীবনের অনেক বড় চাওয়া টা আজ পূরণ হয়েছে । আজ বাড়ি যাবে তারপর বাড়ি থেকে সরাসরি ঢাকা । শুধু মিলন আর অর্পিতার জন্য একটু খারাপ লাগছে । এত দিন কাছে ছিল কেউ এত আপন হয়নি আজ যখন কেউ আপন হল তখনই তাঁকে ছেড়ে যেতে হচ্ছে অনেক দূর । যত দূরেই থাক মনের মাঝে তো সে সবসময়ই আছে ।

মিলন আজ আমার মন অনেক ভাল বল তুই কি খেতে চাস ? পকেটেও অনেক টাকা আছে ।

না রে দোস্ত তোর মুখে যে হাসি আজ আমি দেখেছি এর চেয়ে বেশী আর কিছু আমার লাগবে না ।

মিলন এই চার বছর একসাথে ছিলাম দুই ভাইয়ের মত । তোকে ছেড়ে যেতে আমারও খুব কষ্ট হচ্ছে । চিন্তা করিস না আমি ঢাকায় একটা ভাল বাসা নিই তারপর তুই ও চলে আসবি । দুই বন্ধু আবার একসাথে থাকব ।

জয় বাড়ির উদ্দেশ্যে গাড়িতে । ইয়ার ফোনে বাজছে

পাগল তোর জন্যে রে পাগল এ মন পাগল
মুখে বলি দূরে যা মন বলে থেকে যা
দূরে গেলেই মন বোঝে তুই কত আপন..............

রাত দশটা ........

মিলনের ফোন
জয় তুই কি বাড়িতে ?

হ্যাঁ এই মাত্র পৌছালাম ।

খুব খারাপ একটা খবর আছে

কি বল তারাতারি

চলবে........................

0 Shares

১৭টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ