অর্পিতা ১১

সঞ্জয় কুমার ৩০ জুন ২০১৪, সোমবার, ১২:১৪:৩৩পূর্বাহ্ন গল্প, সাহিত্য ১৬ মন্তব্য

কাকা তোর জন্য এই গিফট প্যাকেট টা পাঠিয়েছেন

কি আছে ওটাতে?

কাকা বলছিলেন তুই ওনার যে দুই কোটি টাকার বিলটা তৈরি করে দিয়েছিলি ওটা পাশ হয়ে গেছে কোন প্রকার লেস ছাড়াই ।

বলিস কি ঐ বিলটা একবারে এপ্রুভ হয়েছে!!!

হু কাকা দেখলাম অনেক খুঁশি ।
তোর কথা বলছিল জয় কোথায় ? ও আমার ছেলের চেয়েও বেশী ।

তাহলে তো কাকার সাথে দেখা করতে হয় ।

আচ্ছা পরে যাস ।

ওটার মধ্যে তোর চাকুরীর জয়েনিং লেটার আর দশ হাজার টাকার একটা চেক আছে ।

টাকা কেন ?

কি জানি ওটা তুই কাকার কাছেই শুনিস

চল প্যাকেটা খুলি

আরে এর মধ্যে দেখছি মিষ্টি । একটা কোম্পানির চিঠি । একটা সাধারণ চিঠি । এই চিঠিটা খোল

জয়
আমার আশির্বাদ নিও । তুমি আমার সন্তানের মত । তুমি যে কাজ করেছ তার জন্য তোমাকে ধন্যবাদ জানানোর ভাষা আমার জানা নেই । তোমার চাকুরী র জয়েনিং লেটার আর আমার পক্ষ থেকে ছোট একটা উপহার স্বরূপ একটা চেক পাঠিয়েছি । আমি আজ নাইটে ঢাকা যাচ্ছি । তুমিও এক সপ্তাহ পর এসো । তোমার নতুন পথ চলার পথ শুভ হোক এই কামনা করি । ভাল থেক ।

দোস্ত আজ পার্টি হবে তো ?

হবে কিন্তু শুধু তিনজন পার্টিতে থাকবে

কে ?কে?

সেটা বিকালে ই দেখবি ।

বাবাকে একটা ফোন করতে হবে ।

তুই তৈরি হয়ে নিস ।

এরপর জয় অর্পিতা কে ফোন দিল

হ্যালো অর্পিতা বলছিলেন ?

হ্যাঁ জয় বাবু বলুন । আপনি কেমন আছেন? অনেকদিন কোন খোঁজ খবর নেই ।

আমি এই কয়েকদিন খুব ব্যস্ত ছিলাম । মাসিমা রাজু কেমন আছে ?

ভালো

একটা অনুরোধ করবো রাখবেন ?

আগে তো বলুন

আজ বিকাল পাঁচটায় একটু দেখা করতে পারবেন ?

কোথায়?

সেই কফি শপে যেখানে প্রথম দিন গিয়েছিলাম ।

আচ্ছা ঠিক আছে ।

বিকাল পাঁচটা

জয় আর মিলন আগেই চলে এসেছে । অর্পিতা এখনো আসেনি । জয় এর প্লান আজ ও অর্পিতাকে প্রপোজ করবে । ভিতুর মত মুখ বুজে থাকা ওর পছন্দ নয় । কিভাবে বলবে এটাই ভাবছিল । এরমধ্যে অর্পিতা চলে এসেছে ।

সরি একটু লেট হয়ে গেল । মিলন ভাই কেমন আছেন ?

ভালো আপনি ?

আমিও ভাল । তবে মনটা খারাপ ।

কেন ?

জয় সামনের সপ্তাহে ঢাকা চলে যাচ্ছে ওর নতুন চাকুরি হয়েছে ।

বলেন কি এটা তো সুসংবাদ ।

তারপরও একসাথে চারবছর ছিলাম ।
হুম তাহলে তো মন খারাপ হওয়ার ই কথা ।

জয় বাবু আপনি কোন কথা বলছেন না ? কোন সমস্যা ?

না মানে , আসলে আমি আপনাকে একটা কথা বলতে চাই

বলুন

ধুর এত করে চেষ্টা করছি তবুও হৃদপিন্ড টা এত বেশী লাফাচ্ছে কেন । এত নার্ভাস হলে কথা বলব কি করে সব তো গুলিয়ে যাচ্ছে । ওরে পাগলা ওকে এত ভয় পাওয়ার কি আছে ও তো আর বাঘ ভাল্লুক না । যা আছে কপালে বলে ফেল ।

আমি আ...আ

বুঝেছি আর বলতে হবে না । পৃথিবীর সব ছেলে একরকম ।

জয় টেবিল থেকে উঠে চলে যাচ্ছে ।
চল মিলন

চলবে.............................

0 Shares

১৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ