অমরত্বের অমৃত সুধা

মোকসেদুল ইসলাম ২২ জুন ২০১৪, রবিবার, ০৪:২৬:১৬অপরাহ্ন কবিতা ৪ মন্তব্য

বিপদজনক সীমানা পেরিয়ে কবির ভালোবাসা ঢুকে গ্যাছে তোমার বুকের ভিতর। স্মৃতির রেড সিগন্যালে তাই জ্বলে ওঠেনি আতঙ্কের লালবাতি। অমরত্বের আশায় মোহের বৃত্তে বিকল্প সংসার গড়ে তুলে ইতিহাস করবে বলে শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে অপেক্ষমান কবি নশ্বর জীবন ত্যাগ করতেও আজ রাজী।

তীরন্দাজের তীরের মাথা ভোতা হয়ে যেতে পারে,লক্ষ্যভ্রষ্ট হতে পারে তার গতিবিধি । অমরত্বের অমৃত সুধা পান না করলে কবির বুভুক্ষু বুক আজ হয়ে যাবে মরূভূমী। শুধু তোমাকে একবার ছুঁতে পারলেই অমরত্ব বন্দী হবে হাতের মুঠোয়। তুমি বিশ্বাস করো কবিমানুষের ভালোবাসার ক্ষমতা অসীম, হৃদয়ের গভীর ক্ষতের উপর ভালোবাসার প্রলেপ দিতে পারে কবিরাই, তারাই পারে কামুক শরীরে হিমশীতল বাতাস বয়ে দিতে। ধরিত্রীর যাবতীয় অসুন্দর, অকল্যাণ দূর করে গভীর প্রত্যয় ও স্বপ্নচেতনায় উজ্জ্বল করে তুলতে পারে প্রেয়সীর মন।

তোমার ভালোবাসার জন্য কবি তার বৈচিত্রহীন কর্পোরেট জীবনের পৌনঃপুনিকতায় চার দেয়ালে আবদ্ধ সুখগুলো পরিযায়ী পাখির ডানায় উড়িয়ে দিতে পারে, ঘুমিয়ে যাওয়া নিসর্গ নগরীর প্রহরী হয়ে পাহারা দিতে পারে যেন তোমার বুক পাঁজর বরাবর ঢুকে যাওয়া ভালোবাসা পালিয়ে না যায় অজানা পথে।

৯৫০জন ৯৫০জন
0 Shares

৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ