অভেদ কাব্য

নূর হোসেন ৬ ডিসেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ০৪:২৩:৩৬অপরাহ্ন অন্যান্য ২৪ মন্তব্য

অচেনা সীমন্তনীর মেঘ কালো কুন্তুল ছড়ালো যখন
আদিত্যের আলোকে,
তুরগ ছুটিলো বুকের ভিতর
শাখী ডালে পাখি গায় মধুর সুধা;
মৃগাঙ্ক ম্লান তার রুপবস্ত্রে,
আমি দিশেহারা-
আলয় চ্যুত;
ঝাপ দিয়েছি ঘোরে প্রীতি বৈশ্বানরে।

অম্বু তৃষ্টা মিটেনা সমীরণ খেয়ে
বারীন্দ্র বুকে লবন-
ফুটেনা তাই অরবিন্দ প্রসূন;
অননুমেয় সুপ্তিতে এসে যায়
যা দেখি তা নয় অভ্রভেদী নেত্র ভুল!
পরিতোষ খেলে ক্লেশপুর্ন মনে,
কখনোই ভাবিনি দেহাংশ প্রেমে ব্যাকুল।

মানেনা বাঁধন বিহিতক শাসন-বারণ
একীভাব মোরা প্রেমিক যুগল,
ভুলে গেছি গোত্র,
পরমাত্মার বানী;
তৃপ্তির ঢেঁকুর তুলে খাই বিষফল!
লোকান্তর প্রাপ্তিও সহজ হয়ে যায়,
প্রেমিক ছাড়া অনম্বর পাগল কে আছে এমন?

৩৮৫জন ২৪৭জন
15 Shares

২৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ