সোনেলা দিগন্তে জলসিড়ির ধারে

অভিশাপে – লাঙল //

বন্যা লিপি ১৭ আগস্ট ২০২০, সোমবার, ১০:৫৬:৫০অপরাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২৮ মন্তব্য

পাথরও ক্ষইতে জানে প্রবল স্রোতের বাণে। জানে ক্ষয়ে যেতে দুর্দান্ত কোনো লৌহখন্ডের আকার। ক্ষয়ে যাবার ইতিহাসে নাম লিখতে অনেক তালিকা দীর্ঘ থেকে দীর্ঘায়িত হতেই পারে! আমি নিয়ত চোখ রাখি এদের থেকেও কঠিন কিছুর দিকে; চোখও ক্লান্ত বোধ করতেই থাকে অবশেষে! অবধারিত অপমানিত বোধএর দুয়ার থেকে ফেরা হয় না তবু।

তবু ফেরা হয়ে ওঠে না।

কেন?

জানা হয় না,  নাকি জানতেই যত ক্লান্তি করে রাখে নির্বোধ?

হতেও পারে!

সব চেষ্টা তবে হাঁটু ভেঙে মাথা নত হয়ে থাকুক।

রাত্রিগুলো ক্ষয়ে যায় না।

যায়না বিষণ্ণ প্রহরের বিষাদমাখা রক্তাক্ত ইলেক্ট্রিক পাখার ব্লেড।

কি দেখো ওই পাখায়?

শেষ না হওয়া ঘুর্ণণ।

কি এমন আছে যা ক্ষয়ে যায় না?নিজের দিকে তাকাই

এই যে!

সময়ের অপেক্ষায় লেগে থাকা চোখের ক্লান্তি!

কেন?

অহংকারের দম্ভ চূর্ণ হতে দেখব বলে।

সময়ের পৃষ্ঠা যেদিন ভরে যাবে -অভিশাপ গুলো সেদিন কি করে লাঙল চষে দেখব বলে।

৪১১জন ২৪৩জন
0 Shares

২৮টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য