অভিনন্দন বর্ণময় দিনের

সাবিনা ইয়াসমিন ২১ জুলাই ২০২২, বৃহস্পতিবার, ০২:৩৬:২৯পূর্বাহ্ন শুভেচ্ছা ২৫ মন্তব্য

সাধারণত হঠাৎ করে ঘটে যাওয়া কিছু ঘটনা অজ্ঞাতসারে অন্য কারো সাথে হুবহু মিলে গেলে তখন আমরা সেটাকে বলি কাকতালীয় ঘটনা। যেমন আজকের ঘটনাটা কাকতালীয়। আসলে ঘটনাটা আজকের বলা ঠিক হচ্ছে না। ঘটনাগুলো ঘটে ছিলো আজ থেকে চার বছর আর দুইবছর আগে, ঠিক একই তারিখে। সেই থেকে আজ পর্যন্ত এবং আগামী সব দিন-তারিখে এর পুনরাবৃত্তি ঘটতে থাকবে। এইক্ষত্রে কি এ-ব্যাপারটিকে কী আমরা কাকতালীয়-ই ভেবে যাবো!  কেউ যদি ভাবতে চায় ভাবুক, না চাইলে দরকার নেই। কিন্তু আমার কাছে এই তারিখ স্বরণে রাখার মতো। যাপিত জীবনে কারোরই ব্যস্ততার ফিরিস্তি বলে-কয়ে শেষ হবার নয়। তবুও কেউ কেউ মনে রাখতে চায়, মনে করিয়ে দিয়ে স্বরণে থাকতে ভালোবাসে।

এত কথা বলার হেতু কি? বলছি,

আজকে ব্লগে লগইন হয়ে অদেখা মন্তব্যর ঘরে একজনের একটা ঐতিহাসিক কমেন্ট পেয়ে এক মুহুর্তে   আমার সোনেলা-স্মৃতির দরজা খুলে গেলো!

আরে তাইতো!
সোনেলা উঠোনে চার বছর! শুধু কি আমারই!

উহু, আমার সাথে একই তারিখের সঙ্গী পেলাম আরও দু’জনকে। একজন আমার সাথী, সতীর্থ, বন্ধু, স্বজন।

আরেকজন? না-দেখার গন্ডি ছাড়িয়ে, দৃশ্যতর সমস্ত পথ-স্থানের দূরত্বকে পাশ কাটিয়ে লেখায়, আন্তরিকতায় আর নিরবচ্ছিন্ন ভালোবাসা দিয়ে সরাসরি হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছেন!

আমাদের কথা বলতে গেলে সারারাত পার হয়ে যাবে। তাই অল্পতে জানাচ্ছি..

আমাদের ভাবনারা মিলে যায়
মিলে যায় না-বলা কথার অক্ষরেরা
অনুভবের উপলব্ধিরা মিলেমিশে বলে দেয়
মিশে ছিলাম আমরা যেন একান্ত আপনজন!

আজকের তারিখে সোনেলায় ব্লগার বন্যা লিপি’র চার বছর

এবং ব্লগার রেজওয়ানা কবির এর দুই বছর পরিপূর্ণ হলো!

সোনেলা উঠোনে বসত-বার্ষিকীর অনেক অনেক অভিনন্দন এবং শুভেচ্ছা আপনাদের। আপনাদের পদচারণায় সোনেলা অঙ্গন মুখরিত থাকুক যুগ-যুগ। সোনেলার অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে বিচরণ করুন সবার মাঝে। শুভ কামনা অবিরাম 🌹🌹

** ছোট্ট একটা প্রশ্ন -কাকতালীয় কথার আসল মানে কি?  তেলের মধ্যে কাক তলিয়ে গেছে এমন কিছু নাকি ❝সব কাক বারবার এক জায়গাতেই তলায়❞ ব্যাপারটা এমন?  কারো জানা থাকলে আমাকেও একটু বুঝিয়ে দিয়েন।

২৪৪জন ২১জন
0 Shares

২৫টি মন্তব্য

  • রোকসানা খন্দকার রুকু

    স্টারদের জন্মবোধহয় একই দিনে হয়।🥰🥰🥰
    আজকের বর্ণময় দিনে থ্রী স্টারের সোনেলা জন্মদিন উপলক্ষে বিশেষ দিন ঘোষনা করা হোক!! কারন ষ্টাররা না এলে সোনেলা এতো বর্ণময় সুন্দর হতো না।
    আমাদের সোনেলা অঙ্গন জাগরিত হোক আপনাদের পদচারনায়- সাবিনা, বন্যা, রেজওয়ানা!!!
    আপনাদের তিনজনকেই অনেক অনেক শুভেচ্ছা, শুভকামনা ও অভিনন্দন।।🌹🌹🌹

  • মনির হোসেন মমি

    পানসে অভিনন্দন মজা লাগে না তবুও দিলাম
    হে প্রিয় মানুষগুলো
    এক সাথে সোনেলায় আর্বিভাবে আপনাদের অভিনন্দন ও অভিবাদন।

    একটি সত্য উচ্চারণ না করলেই নয়-কারোর জন্য কোন কিছু আটকে থাকে না।সময়ের সাথে বিষয়গুলোরও প্রস্থান ঘটে।
    বন্যাপু সাবিনাপুতো ছিলোই তাদের সাথে যোগ হলেন কিছু ব্লগার যারা সোনেলার দুঃসময় হতে আজ অব্দি সোনেলায় লেখার প্রদীপ জ্বালিয়ে যাচ্ছেন।তাদের মধ্যে রেজওয়ানা কবির আপু অন্যতম। অভিনন্দন আপু ।।

    • বন্যা লিপি

      #মনির হোসেন মমি@ পানসে হলে,,,লবন মিশায়া নেন আচ্ছা মত। চাইলে কাগজি লেবুও লইয়া লইতে পারেন,, জম্পেশ মজাদার হয়ে যাবে। তয় তিতা করল্লা নিয়েন না, তাইলে জমা জমি বাদে ঘ্যাট হয়ে যাবে………

      • মনির হোসেন মমি

        আপনারা ভাল মনের বলেই আমিও ভাল মনের হয়েছি।
        অসংখ্য ধন্যবাদ আপু।
        ভাই বোনদের এতো সুন্দর বন্ধনের অনুভুতি পাই কেবল সোনেলায় আছি বলেই।সব কৃতিত্ব সোনেলার।
        ভাল থাকবেন।সুস্থ থাকবেন।

    • সাবিনা ইয়াসমিন

      @মমি ভাই, আমিও আজকে সৎমনে একটা কথা বলছি শুনুন – আপনি/অনেকেই প্রায়শই বলে থাকেন সোনেলার দুঃসময় ইনি ছিলেন/উনি আছেন/তিনি গেছেন ইত্যাদি। কিন্তু আসল ব্যাপার হলো সোনেলা ব্লগ চলছে/চলবে এটার নিজস্বতায়। আমাদের আগে এবং পরে অনেক ব্লগার এসেছেন, আসবেন। কেউ থাকবেন কেউ হারিয়ে যাবেন। এই আসা-যাওয়াটা যারযার ব্যক্তিগত বিষয়। লেখালেখি হলো লেখকের ভালোলাগার উপর নির্ভরশীল। একজন লেখক যেকোনো প্লাটফর্মে লিখবেন, জরুরি নয় ব্লগ থেকে যার/যাদের লেখায় হাতেখড়ি তিনি/তারা আজীবন ব্লগেই লিখতে থাকবেন। সেইম ঘটনা এখানেও। সোনেলা প্লাটফর্ম লেখক/পাঠকদের জন্য। এখানে লেখকরা আসেন লেখেন শিখেন। কেউ থেকে যান, বাকিরা নিজনিজ গন্তব্যে চলে যান। লেখালেখি ভিন্ন এখানে কারো নিজস্ব ব্যস্ততা, স্বার্থগত দ্বন্দের প্রভাব টিকেনি। আগামীতেও সম্ভাবনা নেই।
      আরেকটা কথা, সোনেলার দুঃসময় বলতে কিছুই নেই। অন্যান্য সব সাইটের মতো সোনেলাতেও কিছু দুষ্টরা ছিলো, থাকবে,আসবেও।

  • রেজওয়ানা কবির

    ঘুম থেকে উঠে সোনেলায় এসেই দেখি অভিনন্দন পোস্ট, বুঝে উঠতে না পেরে রুকু আপুকে কল দিলাম।
    আসলে সত্যি বলতে কি আজকের দিন যে সোনেলায় আসার আমার জন্মদিন ছিল আমার মনে ছিলো না। আর এত তাড়াতাড়ী ২ বছর হয়ে গেল ❤️। আমার বোনের জন্যই সোনেলায় আগমন আমার। আগেতো লিখতাম ডায়েরী আর ফেসবুকে। রুকু আপুর জোড়াজুড়িতে প্রথমে অনিচ্ছা স্বত্বেও সোনেলায় উঁকি দিয়েই এই যে আসলাম এরপর সোনেলার ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে এখনো পড়ে আছি, এখন আমার কাছে সোনেলা প্রান কেননা সোনেলায় আমার মনের সবকিছু আমি লিখতে পারি যা ইচ্ছা হয় তাই লিখি, আমার বিশ্বাসের জায়গা এই সোনেলা,তাই সোনেলায় বেঁচে থাকতে চাই যতদিন আছি এই পৃথিবীতে। আমার লেখা না আসলেও বার বার লিখ লিখ বলে লেখা আনিয়ে নেয় আমার বোনই। তাই সোনেলায় আমার জন্মদিনের পুরো ক্রেডিট আমার বোনেরই কেননা সে না আনলে আজ এখানে হয়ত থাকতামই না। অনেক ভালোবাসি আপু তোমাকে যদিও প্রকাশ করতে পারি না তবুও আজ বললাম।
    ব্লগারস প্রোফাইল লেখার সময় আপু আমাকে বলেছিল দীপ্তি তোর আর সাবিনা আপুর একইদিনে সোনেলায় আসা। সেদিন প্রথম শুনেছিলাম।
    এবার আসি যিনি এতো সুন্দরভাবে শুভেচ্ছা পোস্ট দিয়েছে, সাবিনা আপু। যার মাধ্যমেই আইডি করে সোনেলায় আমার প্রবেশ। অবশ্য জিসান দা ও হেল্প করেছিল। কৃতঙ্গতা অশেষ।
    তারপর কেটে গেল দু বছর। দু বছরে আমার কাছে অদৃশ্য, অস্পৃশ্য ভালোলাগার মানুষ আপনি আপু যার ব্যাখ্যা এর আগেও অনেক কমেন্টে দিয়েছি। আমি বিশ্বাস করি কিছু সম্পর্ক এরকমও হয় মনের ভিতর অবলীলায় স্থান করে নেয়, থেকে যায় সারাজীবন। আজ আপনার ও সোনেলায় জন্মদিন অনেক অনেক দোয়া ভালোবাসা সবসময়, আপনার লেখায় বার বার নিজেকে খুঁজে পাই, মনে হয় এগুলোই মানুষের মনের কথা। অনেক লিখুন, শুভকামনা সবসময়,💙।

    এবার আসি বন্যা আপু অনেক অনেক শুভেচ্ছা অভিনন্দন আপু কাকতালীয়ভাবে মিলে গেল আপনাদের সাথে আমার আজকের এই দিনটি। সোনেলায় বাকিজীবন এভাবেই থাকতে যেন পারি সবাই এই কামনা। শুভকামনা সবসময় বন্যা আপু 💚।
    মমি ভাই, সৌবর্ন ভাই এবং বাকি যারা মন্তব্য করেছেন সবাইকে অনেক ধন্যবাদ আর শুভকামনা সবসময়।
    এভাবেই সবার পাশে থাকি সবাই একসাথে ইনশাআল্লাহ।

  • বন্যা লিপি

    ময়না-
    রাগ করে আছ বুঝি!
    কি করব বলো! আমি হতভম্ব হয়ে ছিলাম এমন অভিনন্দিত শুভেচ্ছায়।
    কবে- কখন- কোথায় কোথায় পায়ের চিহ্ন রেখে রেখে হেঁটেছি কিংবা ফেলে এসেছি কোথা থেকে কোথায়! কে রেখেছে মনে এমন করে কবে? আমিই রেখেছি মনে! আমার পদচিহ্ন কোথায় রয়ে গেছে কেমন করে?
    কোন গ্রহণের প্রাক্কালে যে অনলাইনের ভুতে টানছিলো আামারে! তারপর সোঝা টপকে পড়লাম এখানে।
    মাই মাই….. কায়দা কানুন,,ঝক্কি কিচ্ছু বুঝিনা! গড়াতে গড়াতে দিনের সাথে আমিও গড়াই আপন তালে।আমার দেয়ালে লিখতে বাঁধা ছিল/আছে বলে এই উঠোনে হাঁফ ছেড়েছি আপন মনে(?) তাও বলি কি করে!!! এখানেও দেখি চোখ রাঙানি- ঠোঁট বাঁকানি সবই আছে ছদ্ম নামে।
    আড়ে ঠাড়ে অনেক বাদে তুমি-আমি ময়না হলেম।
    তোমার জন্যে বলতে পারি, অনেক কিছু গেছি লিখে। তখন বুঝি মনের কোঠায় জ্বলত হরেক আলোর ঝালর,এখন সেসব দিন ফুরানো মরা আলোর ছায়ার মত।
    তোমাকেও অভিনন্দন হাজার হাজার🌹🌹🌹🌹আমায় মনে রেখো চলে গেলে, নিত্যদিনের প্রার্থনাতে।
    ভালবাসা তোমার তরে❤️❤️❤️❤️

  • হালিমা আক্তার

    তিন তিন জনের জন্মদিন। অথচ একটা কেক ও কাটা হলো না। আমি অপেক্ষা করছিলাম কেক খেয়ে তারপর মন্তব্য করবো। বাসী শুভেচ্ছা রইলো। অভিনন্দন ও শুভকামনা তিন জনের জন্য।

  • নিতাই বাবু

    একসাথেই দুজন সতীর্থকেই শুভেচ্ছা অভিনন্দন জানাচ্ছি। সাথে দুজনের সুখসমৃদ্ধিও কামনা করছি। পোস্টদাতা দিদি ও সোনেলা ব্লগের জন্যও আন্তরিক শুভকামনা থাকলো।

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ