অবিবাহিত বাবা ( শেষ পর্ব )

রাফি আরাফাত ২৭ জুলাই ২০১৯, শনিবার, ০৫:২৪:১২অপরাহ্ন গল্প ২৩ মন্তব্য

বাবার লিখা আমার জন্য শেষ চিঠি —

স্নেহের আরিয়ান,

আমাকে ভুল বুজিস না বাবা। আমি তোকে কখনো কষ্ট দিতে চাইনিরে বাবা। হয়তো আমার জন্য খুব অভিমান হচ্ছে তোর। কিন্তু তুই যেমনটা ভাবতেছিস তেমনটা না বাবা। তোর বয়স যখন ১ বছর ২ মাস তখন তোর বাবা এক গাড়ি এক্সিডেন্টে মারা যায়।কিন্তু উনি বিদেশে থাকাতে কথাটা খুব বেশিজন জানতো না।কিন্তু তোর বাবার শোকে তোর মা ও ধীরে ধীরে অসুস্থ হয়ে পরে এবং তোর বাবা চলে যাওয়ার ঠিক ১ মাসের মাথায় তোর মা ও চলে যায়।আমি তোকে মানুষ করার দায়িত্ব নেই। যে মহিলাটাকে সেদিন রাতে তুই আমার কাছে দেখছিস না,ওইটা আর কেউ না, ওটা আমার অবিবাহিত স্ত্রী।যখন তোর মা মারা যায় তখন আমার আর রুনার বিয়ে ঠিক হয়ে গেছিলো। কিন্তু তোর মা মারা যাওয়ার পর আমি তোর জন্য বিয়ে না করার সিদ্ধান্ত নেই। কেন জানিস।জাতে তোকে বড় হয়ে শুনতে না হয় যে রুনা তোর মা নয়।তোর মা মারা গেছে। কিন্তু রুনা আমাকে ছাড়া আর কাউকে বিয়ে না করে নিজের জীবনটা তোর আর আমার পিছনে শেষ করে দেয়। আমাকে ভুল বুজিস না তুই(আরিয়ানের চোখ ভিজে আসে,মাটিতে বসে পরে)। বাবা আমি কিভাবে এই মুখে তোকে এতো কথা বলবো।তাই লিখে দিলাম। আমাকে মাফ করে দিস। আর হ্যাঁ, আমি তোর আন্টিকে সব বুজিয়ে দিছি।আজ থেকে ও তোর সব সেবা যত্ন নিবে।ভালো থাকিস বাবা।

তোমার আর আমার গল্পের শেষটায় আজ তুমি নেই।অথচ বাবা তুমি গল্পের মূল চরিত্র। জানো বাবা আমি না আজ একটা অনেক বড় পাপ করছি। আচ্ছা বাবা এই পাপের কি মাফ হবে না আমার?বাবা তুমিহীন গল্পের শেষটা আমাকে ভিশন কষ্ট দিচ্ছে।

১৯৫জন ৭১জন
5 Shares

২৩টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য