অবশেষে আমি যখন সোনেলায়

নাসির সারওয়ার ১১ অক্টোবর ২০১৫, রবিবার, ১২:২৬:১২পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ৫৬ মন্তব্য

লুকিয়ে ভালো কিছু দেখা অপরাধ নয়। এই ধারনায় ছিলাম অনেক দিন। সোনেলার সংসারে অনেক তারা, যারা জ্বলছে তাদের মহিমাতেই। ভালো লাগে অনেকেরই লেখা। আবার মেজাজের তিরিক্ষি করি যখন দেখি মগজ তা কুলাতে পারছেনা। একজন লেখক রূপকথা নিয়ে লিখছেন। ভালো, তা “রূপকথার শিশু” টা ক্যামন কর্ম ? বুড়ো বাপটাও দেখুক না কালো মায়ের সঞ্চয় স্বপ্নের বড় হওয়া। আরেক জন আবার নিয়ে এলেন “রূপকথার জিরাফ” ! রূপকথা তো “এক দেশে ছিল এক রানী, তার ছিল এক রাজা” এমনই হবার কথা। অন্য আরেকজন লিখলেন “আকাশ ডাকে বলেই তো বলাকারা ওড়ে……বাংলাদেশ ভ্রমণ(পাঁচ)”। বাহ! কত সহজ ভাবে দেখিয়ে দিলেন একই অঙ্গে কতো রূপ। আমিতো সবাইকে চিনে ফেলেছি। আবার সেই লেখকই লিখলেন “আহ! (নিখাদ রাত্রি…)”। একি অত্যাচার! পরতে পরতে মুখস্ত করে ফেলেছি, কিন্তু ক থেকে ক্ষ, কিছুই বুঝিনি।

আরও একটা লেখার কথা না বললেই নয়। “প্যাঁচানো তারে রয়ে যায় ঝুলন্ত মায়ারা”। তাহলে সোজা তারের আত্মকাহিনী কি হবে। ভয় নেই, বলে যাব মরার আগে। আর হাত পা ভাঙ্গাতেও ছোঁয়া হয়ে যাবে। তিন যুগের কাহানী, আরও আসবে নিশ্চয়ই। অপেক্ষা অনেক কষ্টকর, তারপরও আমরা অপেক্ষায় থাকি একটু ভালবাসার ছোঁয়া পেতে।

আমি যদি সোনেলার এডমিন হতাম – দুটো তীর দিয়ে নির্দেশনা দিতাম। নির্বাচিত পাঠকেরা উত্তরে যান, নির্বোধরা (আমার মত) দক্ষিণে যান। এক সময় ঠিক ঠিক অকুল সাগরে পৌঁছে যাবেন। বেঁচে থাকো সোনেলা। তোমার প্রদীপের আংশিক জ্বালানী আমি হব।

২১৭জন ২১৭জন
0 Shares

৫৬টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য