কোথাও আকাশ তলে ,
শুকনো পাতার আলগোছে ঝরে যাওয়া দেখে
দীর্ঘ বিরহ রজনী শেষ হলো ভেবে কোন এক বিরহী হরিণী,
আলতার শেষ টান দেয় , কাজলে সাজায় মায়ার নজর।

শীতনিদ্রা শেষ করে দুর্বৃত্ত অজগর
আড়মোড়া ভেঙে রদ্দুরের ওমে এসে থামে গড়িয়ে গড়িয়ে,
সর্বাঙ্গে দুর্ভাগ্যের অভিশাপ জড়ানো এক মহাকাল খিদে নিয়ে।

বিরহী হরিনী
উচ্ছাসের নজরে সকলি রঙিন তার; পথের ধুলোয় সোনাকুচি,
বাতাসে লেবুফুলের ঘ্রাণ, উল্লাসে মাতোয়ারা ঘর বার।
সুখী দৃষ্টিপাত কেবলি এড়ায়ে যায়
অভিশপ্ত ক্ষুধার্ত রাক্ষস, ঘাসের আড়ালে শিস দেয়া সাপ।

কোথাও আকাশতলে
কেবলি আঁধার, কেবলই দীর্ঘশ্বাসের ঝড়।
প্রলয় শুরুর আগের নিস্তব্ধতা, হিরণ্ময় দ্যুতির অবিশ্বাস , পাপ।

- তবু অবিশ্বাস পুষে রাখি হে,
এবং অলৌকিকের অপেক্ষায় থাকি।

2 Shares

৩৪টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ