সোনেলা দিগন্তে জলসিড়ির ধারে

অণুর ছবিতা

রিতু জাহান ২২ আগস্ট ২০২১, রবিবার, ০৮:৪১:৫২পূর্বাহ্ন একান্ত অনুভূতি ২০ মন্তব্য

অণু কথনঃ

একঃ

নিজ জগতের ঊর্ণাজাল ছিঁড়ে বিলুপ্ত করেছিলাম নিজ ব্যাক্তিসত্বা,
মিশেছিলাম যূথসত্বার সাথে।
তা ছিলো অলিখিত মৃত্যু জীবন খাতার প্রতি পরতে পরতে।
স্বরূপ ঐশ্বর্য্যের মায়াগন্ধ ছেড়ে মায়াশঙ্খ বাজিয়েছি সংসার খাতায়
বিষন্নবদনে রোদন করেছে এ মন শৃঙ্খলবদ্ধ যূথভ্রষ্টা হরিণীর মতো
নিজ আত্মাই আমার বিসর্জ্জক সেখানে।

দুইঃ

শৃঙ্খল চায়নি মন চেয়েছিলো শৃঙ্খলা।
আকার দেয়ার অপরাধে অভিযুক্ত আসামী দাঁড়িয়েছি জীবন সংসারে।
কারণ,
মায়াবহ্নি কল্পনার জগত আমায় করেছে গরবিনী।
কম্পোমান কোমল হাতে নব নব তুলির টানে
ঋতু প্রকৃতিকে মায়াকাননে আমার কল্পঘরদ্বার।
সেখানে শোভা পায় সুতরুন স্থল জল
এক প্রচন্ড প্রেমে ভেসে যাওয়ার অভিলাশ।
হাসির কলধ্বনি বেজে যায় সে জীবন খাতার প্রতি পরতে পরতে।
দৈবক্রমে প্রেমের সে অমৃত তুলে রাখা যুগ থেকে যুগে।
জগৎসংসারে যুক্ততার সূত্র আমি লঙ্ঘন করি সে ঘরদ্বারে
পরমহংসের পাশে পাপীয়সী যেমন।

তিনঃ

পারিবারিক অবকাঠামোর অমোঘ নির্দেশ লিখে চলা জীবন খাতায়
একটা বিরামচিহ্ন যেনো সে অস্পর্শ প্রেম, হ্লাদিনী মায়াবন।

চারঃ

অশ্রুলাঞ্ছিত নারীর সিক্ত চোখ দেখে অভ্যস্ত জীবন সংসার
অশ্রুরুদ্ধ করুণ কন্ঠস্বরে কেঁপে ওঠে এক এক সম্রাজ্য
কাঁপে না শুধু জীবন সংসার
পেষণযন্ত্রে পিষে চলে এক মস্ত জীবন।

 

পাঁচঃ

এখানে এমন সব স্মৃতি পুনরুজ্জীবিত ,
বিষন্নরা হতভম্ব
পেঁজাতুলো মেঘও থমকে
একলা তারা আগলে
ভরা জ্যোৎস্না ঢেলে চাঁদ ঐ রাতের বুকে জ্যোৎস্নাময়ী ।

,,রিতু জাহান,,
ষোলই ডিসেম্বর
পহেলা পৌষ
শুক্লপক্ষ

ছবি আমার তোলা,, আর শিউলি ফুলের ছবি দাদাভাই, ফিচার ছবি নেট থেকে নেয়া।

৭৫৮জন ৩৫জন
0 Shares

২০টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ফেইসবুকে সোনেলা ব্লগ

লেখকের সর্বশেষ মন্তব্য