জুন ২৫২০১৭
 
ওমিক্রনের কথাঃ হস্তাক্ষর (শর্ট ফিকশন)

  বেশ অনেক সময় ধরে চেষ্টা করছি মানুষের মত লিখার জন্যে, কিন্তু হচ্ছে না। মানুষের এই ব্যাপারটি একদম অন্যরকম, ঠিক যেমন তাদের স্বভাবের মত। এক একজন মানুষের স্বভাব যেমন এক এক রকম হতো, ঠিক তাদের হাতের লেখা গুলিও এক এক রকমের। যদিও অনেকের সাথে অনেকের স্বভাব আর হাতের লেখার মিল পাওয়া যেতো, তবুও সূক্ষ্ম একটা [বিস্তারিত]

জুন ২৩২০১৭
 
কথপোকথন ঈদ এবং ইদ এবং ক্ষোভ

হেলো -জ্বি কে বলছেন,? ব্যাস্ত রফিক সাহেব।ব্যাস্ততার মাঝেই কে ফোন করল তা না দেখে কাধ কানের মাঝ খানে ফোন রেখে কথা বলছেন আর দুহাত দিয়ে অফিসিয়াল কাজ সারছেন।ফোনের অপর প্রান্তে ধমক শুনে সে ফোনের দিকে তাকিয়ে আবার কানে নিয়ে কথা শুরু করলেন। -বলো, -বলো মানে তুমি কার সাথে কথা বলছিলে? -খাতা কলমের সাথে, -ফাইজলামি করো… [বিস্তারিত]

জুন ১৯২০১৭
 

বিনাবাক্যে খাওয়া শেষ করে উঠে যায় আনন্দ। অতিথি রুমে গিয়ে ব্যাগ থেকে একটা বই বের করে হেলান দিয়ে মনযোগ দেওয়ার চেষ্টা করে। ভাবনার সাগর তখন উথাল, মধুর যন্ত্রণায় কাতর অবস্থা। বন্ধুর কথা রাখতে হলে তাকে এখানে কাটাতে হবে কিছুদিন, কিন্তু সেটা কি কখনো সম্ভব হবে? জান্নাতকে দুঃখ দেওয়ার বিন্দুমাত্র ইচ্ছা তার নাই, এমন একটা অপ্রত্যাশিত [বিস্তারিত]

আশ্রয় (অনুগল্প)

 লিখেছেন on জুন ১০, ২০১৭ at ১০:০৬ অপরাহ্ন  গল্প, পরিবেশ, সমসাময়িক  ২৩ Responses &#১৮৭;
জুন ১০২০১৭
 
আশ্রয় (অনুগল্প)

তাপিত রোদেলা দুপুর, হেঁটে হেঁটে ক্লান্ত পথিক মনটা আনচান করে উঠে এতটুকু ছায়ার আশায় দূরে ছায়াতরু দেখে এগিয়ে যায়, যেখানে ঝিরোচ্ছে রোদে জ্বলসানো রিক্সাওয়ালা ছায়ার এক কোণে কলাওয়ালা জলগামছা নাড়িয়ে যায় হয়ত নিজে বাতাস নেয় বা মাছি উড়ায় বড় এক নিশ্বাস ফেলে পথিক বসে পড়ে ছায়াতরুর শিখড়ে গাছের পাতার নিচে আশ্রয় নেওয়া কবুতর গুলো ঘাড় [বিস্তারিত]

একাপনা ২ (অনুগল্প)

 লিখেছেন on জুন ৯, ২০১৭ at ৬:২০ অপরাহ্ন  গল্প  ১৬ Responses &#১৮৭;
জুন ০৯২০১৭
 
একাপনা ২ (অনুগল্প)

সুনসান নিরবতা, হঠাৎ একটা কাক চিৎকার করে উঠলো তারস্বরে ফিরে তাকালাম গাছের ঢালে বিরস মনে এই সময়ে কাক ডাকা অনাকাঙ্ক্ষিতই বটে, হয়ত বিড়াল দেখে ভয় পেয়েছে মাথা ঘুরিয়ে নিয়ে আবার আনমনা হয়ে গেলাম, ফিরে গেলাম স্মৃতির পাতায় বসে ছিলাম দুজন ঐ কাঁঠালচাপার তলে, আমার হাতের তালুতে বিলি কাটছিলে বলছিলে কবে আমাদের বিয়ে হবে, আমাদের সংসার [বিস্তারিত]

জুন ০৮২০১৭
 
ঘূণে ধরা সমাজে ফুলীর সন্তানেরা ০৩পর্ব

জয় ফোনে কয়েক বার ট্রাই করার পরও সেই মুহুর্তে ফোনের অপর প্রান্ত হতে কেবল ফোন বিজি বলছিল।এ দিকে ফোনে খবর দিতে না পেরে জয়ের সমস্থ শরির ঘামে একাকার।দারোগা তার হাতের মোবাইল ও কাধে ঝুলানো ব্যাগটি নিয়ে আসতে এক সিপাহীকে অর্ডার করেন।সিপাহী তা নিয়ে এসে দারোগার টেবিলের উপর রাখলেন।সব ঝামেলা শেষ দারোগা বাবুর টেলিফোনে ফোন আসে।রাতের [বিস্তারিত]

এর ই নাম প্রেম হয়তো…

 লিখেছেন on জুন ৬, ২০১৭ at ৩:০৯ পূর্বাহ্ন  গল্প  ২০ Responses &#১৮৭;
জুন ০৬২০১৭
 

চার বছরের ফারাবি জিজ্ঞাসা করল, আচ্ছা মামনি তুমি শুধু বাবু চাচ্চু এলেই কেন চোখে এত সুন্দর করে কাজল দাও? ছেলের এমন প্রশ্ন শুনে মা তো পুরা ফাফড়ের মধ্যে পরে গেল । চার বছরের এত টুকু বাচচা কি করে এমন কথা বলতে পারে ভাবতেই অবাক লাগছিল জয়ার। সতের বছর বয়সে যখন জয়ার বিয়ে হল তখন সে [বিস্তারিত]

মুখোশ

 লিখেছেন on জুন ৪, ২০১৭ at ১:০০ পূর্বাহ্ন  গল্প  ১৪ Responses &#১৮৭;
জুন ০৪২০১৭
 
মুখোশ

  মাঝে মাঝে হারিয়ে যাবার প্রচণ্ড তৃষ্ণা পায় আমার। হারিয়ে যেতে ইচ্ছে করে পরিচিত এই ভুবন ছেড়ে। কিন্তু এটা নিছকই এক ছেলেমানুষি ইচ্ছা। যেখানে ভুবন বলতে আমার জানা শোনা রয়েছেই কেবল এই একটাই, সেখানে আর কোথায় গিয়ে হারাবো? কিন্তু তবুও হারিয়ে যেতে ইচ্ছে করে। সমাজবদ্ধ হয়ে ভদ্র মুখোশের ভিড়ে আমি যেন দিনকে দিন কেবল হাঁপিয়ে [বিস্তারিত]

জুন ০২২০১৭
 
ঘূণে ধরা সমাজে ফুলীর সন্তানেরা-০২পর্ব

সন্তানের কিছু হলে সবার আগে জানেন মা।তাইতো মাকে পৃথিবীর সর্বোচ্চ সন্মানীত আসনে রাখেন এই পার্থিব জগতে সকল ধর্মের অনুসারীরা।সুতরাং মায়ের কোন বিকল্প নেই।জয়ের মা ফুলী সেজদায় পড়ে আছেন ছেলে তা লক্ষ্য করলেন।জয় মাকে আর জাগাতে চাইলেন না সে নিঃশব্দে ঘর হতে বাহির হবার চেষ্টা করেন ঠিক সে সময় গোয়াল ঘরে গরুর খাবার দেয়ার সময় হওয়াতে [বিস্তারিত]

জুন ০২২০১৭
 

সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে একহাজার ফুট উপরে পাহারের চূড়ায় বসে সূর্যাস্ত দেখছিল আনন্দ, সময়ের আর্বতে সূর্যটা ক্রমেই বিলিন হয়ে যাচ্ছে ভৃপৃষ্ঠ থেকে, উপরের দিকে যতটা আলো আছে তার তুলনায় নিচে অন্ধকার নেমে এসেছে। মেঘের খুব কাছাকাছি বসে সূর্য ডোবার দৃশ্য দেখার সাধটা বহুদিনে পূরণ হয়েছে তার,ভবঘুরে জীবনে যে তার কত ইচ্ছা জাগে তার কোন কীনারা সে নিজেই [বিস্তারিত]

নিশীর গল্প (শেষ পর্ব)

 লিখেছেন on মে ২৮, ২০১৭ at ১০:২৮ পূর্বাহ্ন  গল্প, বিবিধ, সাহিত্য  ১০ Responses &#১৮৭;
মে ২৮২০১৭
 

নিশীর গল্প শেষ পর্ব . খালা,খালাত বোন, খালাত ভাই সকলকে পেয়ে তারা আহ্লাদে আটখানা। রোজ খালা নিশিকে চুল বেঁধে দেয়, খালাত বোনকে নিয়ে ঘুরতে বেরোয়, খালাত ভাই নানান প্রশংসা করে। বেশ কাটে একেকটি দিন।ও রমিজা খালার ছেলেমেয়েদের নামইতো বলা হয় নি। ছেলেটির নাম রনি,মেয়েটির নাম দীপা। রনি গ্রামের বাড়িতে জমি দেখাশোনা করত। এখন শহরে বাস [বিস্তারিত]

মে ২৩২০১৭
 
"ঘূণে ধরা সমাজে ফুলীর সন্তানেরা" পর্ব০১

মায়ের চোখে ঘুম নেই।ছেলেটা ঘর থেকে যখন বিশ্ব বিদ্যালয়ে পড়তে যায় তখন থেকে বাড়ী ফেরা না পর্যন্ত সে ঘুমাবে না।আজ কাল ছেলেটা কেমন যেনো এক রোখা হয়ে গেছে।রাতে বেশ দেরী করে বাড়ী ফেরে।আবার সেই ফজরের আযানের সঙ্গে সঙ্গে ঘর থেকে বের হয়ে যায়।জিজ্ঞাস করলে বলে “মা আমার কোচিং ছিলো অথচ দিন আনি দিন খাই ওর [বিস্তারিত]

মে ২১২০১৭
 

বিয়ের দুবছরের মধ্যেই আমাদের জীবনকে পূর্ণতা দেয়ার জন্য ঘর আলোয় উদ্ভাসিত করে আসলো বেলী তাকাসকোভা ভ্লাদিমির। বেলী নামটা রেখেছিল নাদিয়া। বেলীর জন্মের সময় কোথা দিয়ে যেন বেলী ফুলের সুঘ্রাণে নাদিয়ার কক্ষ পরিপূর্ণ হয়ে গিয়েছিল। জেস এই আমাদের বেলী ভ্লাদিমির, তোয়ালে মোরান টুকটুকে জীবন্ত পুতুলটাকে আমার কোলে দিয়ে যখন নাদিয়া বলল এ কথা, আমি বলি ‘ [বিস্তারিত]

অহঙ্কারী অভিমান

 লিখেছেন on মে ১৯, ২০১৭ at ৮:২০ পূর্বাহ্ন  গল্প  ২২ Responses &#১৮৭;
মে ১৯২০১৭
 
অহঙ্কারী অভিমান

এক অদ্ভূত সঙ্কেত পেলো ঋক নিরবচ্ছিন্ন নীরবতার মধ্যে। একটি চিঠি লেখার কথা ছিলো। সে ভুলে গেছে কবে, কখন বলেছিলো, “হুম লিখবো। ভেবোনা আমাকে নিয়ে।” কিন্তু আজও লেখা হয়ে ওঠেনি। কি যে হয়েছে আজকাল তার, বয়স কি মস্তিষ্কের নিউরণকে গিলে খায়? ক্যালেন্ডারের পাতার মধ্য দিয়ে জীবনকে চলতে দেয়নি বলেই কি আজ ব্যঙ্গ করছে ক্যালেন্ডারের ওই তারিখগুলো? [বিস্তারিত]

নদী (২০তম পর্ব)

 লিখেছেন on মে ১৭, ২০১৭ at ১১:৪২ অপরাহ্ন  গল্প  ২৪ Responses &#১৮৭;
মে ১৭২০১৭
 
নদী (২০তম পর্ব)

  রাতে খাওয়ার পর জীবনের মা জীবনকে নিয়ে ড্রয়িং রুমে বসেছে গল্প করছেন, এক সময় মিনা, অনিক, অন্য ভাই আর ভাইদের বউ সবাই এসে ড্রয়িং রুমে গল্পে যোগ দিলো, সবাই আসার পর জীবনের মা কথা তুললেন। জীবন, মেয়েটা তো বড় হচ্ছে, তা বিয়ে তা তো একটা করা উচিত, আর কতোদিন এইভাবে একা থাকবি? না মা, [বিস্তারিত]