মৌনতা রিতু

মৌনতা রিতু

সোজাসাপটা কথা বলা, প্রাণচঞ্চল একটা মানুষ। অনেক আশা,স্বপ্ন নিয়ে বেঁচে থাকতে ভালোবাসি।

পাপ স্বীকার।

 লিখেছেন on অক্টোবর ২১, ২০১৭ at ১০:৫০ পূর্বাহ্ন  একান্ত অনুভূতি  ১৩ Responses &#১৮৭;
অক্টো. ২১২০১৭
 

আমি মিশন স্কুলে পড়াশুনা করেছি। আমাদের স্কুলে চমৎকার একটি গির্জা আছে। রবিবার ছিলো প্রার্থনার দিন। তাই সকালে প্রার্থনার জন্য আমাদের রবিবার দিন সকাল সাড়ে ন’টায় ক্লাস শুরু হতো। আমরা সব ধর্মের ছেলেমেয়েরা ইচ্ছে করলে গির্জায় যেতে পারতাম। কোনো বাঁধা ছিলো না। আমি প্রায়ই যেতাম। কেমন যেনো একটা শান্তি। চুপ করে ফাদারের কথা শুনতাম। যেহেতু আমি [বিস্তারিত]

‘মন ভাবে বলেই ভেবে বসি’

 লিখেছেন on অক্টোবর ১৮, ২০১৭ at ১১:১৯ অপরাহ্ন  একান্ত অনুভূতি  ৯ Responses &#১৮৭;
অক্টো. ১৮২০১৭
 

মনের কোনে কোথাও যদি আওয়াজ ওঠে ঝড় তুলো না, ডেকে যেও চুপটি করে সুর ছড়িয়ে দিও দু’কদম দূরে আমার তরে। চাঁদ উঠুক না উঠুক জ্যোৎস্না হবে তাতে, পাখামেলে ঝাপ দিবো সে জ্যোৎস্নালোকে বসন্ত হোক না হোক বাসন্তি ফুল হতে লজ্জার প্রভা মেখে নিব। এসব কতোশতো অলস সব ভাবনাগুলো আকাশের ঐ চাঁদের পাত্রে জমা রাখি। মিথ্যে [বিস্তারিত]

প্রিয় কবি ‘রুদ্র’

 লিখেছেন on অক্টোবর ১৬, ২০১৭ at ৪:০৭ অপরাহ্ন  একান্ত অনুভূতি  ১০ Responses &#১৮৭;
অক্টো. ১৬২০১৭
 

গতরাতে যা লিখেছি, ধরে নাও, উড়িয়ে দিলাম ঐ নীল আকাশে, তোমার তরে। তোমার নীলের বুকে হোক তার আশ্রয়। এক ফোটা সাদা মেঘে তার ছবি একেঁ নিও তোমার বুকের একবিন্দু নীল ঢেলে দিও তাতে তোমার শব্দের ছোঁয়ায় ও একবিন্দু নীলে বিবর্ণ সে সব শব্দে আমার প্রাণ আসুক। বলেছিলে ভালো থেকো, ভালো আছি, কবি ভালো থেকো ওপারে [বিস্তারিত]

অক্টো. ১২২০১৭
 

রোহিঙ্গা নিয়ে কিছু লিখব না ভেবেছিলাম। গতবছর আমিই বলেছিলাম, কিছু মানুষ আশ্রয় দিলে এ আর এমন কি হবে! ফেসবুকে তাদের আশ্রয় দেওয়ার ব্যাপারে অন্যের বিরুপ মনোভাবে বিরক্তও যে হইনি তা নয়, হয়েছি। আসলে আমরা অনেক বেশি মানবিক বলেই, হঠাৎ করে এসব ঘটনার কঠিন বাস্তবতা ভুলে যাই। হিসেব করি না, সামনে কি হবে। আমি মানবিক বা [বিস্তারিত]

আশ্চর্য্য বই! পিছনে বিভৎসতা।

 লিখেছেন on অক্টোবর ৪, ২০১৭ at ৮:৫৯ অপরাহ্ন  ইতিহাস  ১৪ Responses &#১৮৭;
অক্টো. ০৪২০১৭
 
আশ্চর্য্য বই! পিছনে বিভৎসতা।

মানুষের চামড়া দিয়ে বাঁধানো বই উত্তর ইংল্যান্ডের লিওসের এক রাস্তায় সম্প্রতি মানুষের চামড়া দিয়ে বাঁধানো ৩০০ বছরের পুরোনো একটি বই পাওয়া গেছে। বইটির ভেতরের পৃষ্ঠাগুলোতে কালো কালির হাতের লেখা রয়েছে। ধারনা করা হয়, এটি সতেরো শতকে লেখা। বইটির বিষয়বস্তু ফরাসি ভাষায় লেখা। ফরাসি বিপ্লবের সময় এমন অনেক বই বেরিয়েছে যেগুলো এ বইটির মতো মানুষের চামড়া [বিস্তারিত]

নুয়ে পড়া দিগন্তের পথে

 লিখেছেন on সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৭ at ৯:৫০ পূর্বাহ্ন  একান্ত অনুভূতি  ৯ Responses &#১৮৭;
সেপ্টে. ৩০২০১৭
 
নুয়ে পড়া দিগন্তের পথে

হেঁটে যাব কোনো একদিন অবারিত মাঠের প্রান্তে নুইয়ে পড়া আকাশের নীলটুকু ছুঁতে বসে রব আদিগন্ত নদীর বুকে। তোমার কোমর জড়িয়ে শক্ত করে বেঁধে দিব আঁচলের বেড়। গোধূলীক্ষণে মিলিত হাসির উচ্ছাসে মধুর হয়ে উঠবে দিন ও সন্ধ্যার সে মিলনক্ষণ। তোমার চোখের পানে চোখ রেখে চেয়ে রব অপলোক দেখে নিও এ চোখে তখন সদ্য ক্ষান্ত বর্ষনের শীর্ণ [বিস্তারিত]

চলমান সৃষ্টির শৃঙ্খল।

 লিখেছেন on সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৭ at ১০:৩১ পূর্বাহ্ন  একান্ত অনুভূতি  ১৩ Responses &#১৮৭;
সেপ্টে. ১৭২০১৭
 

ইদানিং ছোটখাটো বিষয় নিয়ে বড্ড রেগে যাচ্ছি। কারো সামান্য ভুলও সহ্য হচ্ছে না। বাইরেও এর প্রভাব ফেলছি। ভুল করা দেখলেই মনে হয় চাপকে চামড়া তুলে দেই। আবার পরক্ষনেই নিজেকে সামলাচ্ছি ঠিকই। গাম্ভীর্যের মুখোশ পরছি কিনা জানি না। হঠাৎ হাসলেও মনে হচ্ছে রাবারের মতো একটানা হাসি দিয়ে থেমে যাচ্ছি পরক্ষনেই। ভাবছি, আমাদের সমাজ ও পরিবারে এমন [বিস্তারিত]

আশ্রিত যেন না হয় শেয়াল মগজ।

 লিখেছেন on সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৭ at ৩:৫৬ অপরাহ্ন  একান্ত অনুভূতি  ১৭ Responses &#১৮৭;
সেপ্টে. ১১২০১৭
 

অনেক আগে অর্থাৎ আমার নানা দাদাদের সময়। তখন নাকি মুখে মুখেই জমি দান হয়ে যেতো। আবার জমি রদবদলও হতো। তাই দান করা জমি ও বদল করা জমি সেসব সূত্রে বসবাসকারিরাই জমির মালিক হয়ে যেতো একসময়। আমার নানাও এরকমভাবে সরকার বাড়ির লোকদের ঘরতোলার জন্য কিছু ভিটে জমি দিয়েছিলেন, কারণ তাদের ঘর তোলার জন্য ভাল ভিটে জমি [বিস্তারিত]

অপরাহ্নের ম্লান রোদ্দুর

 লিখেছেন on সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৭ at ১১:৩৬ অপরাহ্ন  একান্ত অনুভূতি  ৮ Responses &#১৮৭;
সেপ্টে. ০৫২০১৭
 
অপরাহ্নের ম্লান রোদ্দুর

অপরাহ্ণের ম্লান রোদ্দুর, ছায়াশীতল বিষন্ন পথ ডেকে বলে,”চলে এসো পথ চলি গোধূলি এখনো অনেক বাকি।” আলস্যের তপ্ত দুপুর, রুক্ষ জট পাকানো চুলে ঢাকা পড়েছে শীর্ণ কপাল কালি ঢালা দুটি চোখে ঘুমের আবেশ অপরাহ্ণের এ ম্লান রোদ্দুর এক ফোটা লাবণ্য এনে দিবে কি এ মুখে? বিষন্ন পথ মাড়িয়ে মাঠের এ প্রান্তে অপেক্ষামান গোধূলী। এ যেন ঠিক, [বিস্তারিত]

যাপিত জীবন।

 লিখেছেন on সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৭ at ৯:৫৮ পূর্বাহ্ন  একান্ত অনুভূতি  ৬ Responses &#১৮৭;
সেপ্টে. ০৪২০১৭
 

জীবন পরিক্রমায় এখন বয়সের শেষ প্রান্তে চলে এসছি। একমগ কফি হাতে বসে ভাবছি অনেক স্মৃতি। আসলে ভাবছি না, স্মৃতিগুলো ভেসে ভেসে উঠছে। প্রতিটা মানুষেরই শৈশব খুব প্রিয় হয়। আমারও শৈশব খুব আনন্দময় ছিল। বাবার চাকরিসূত্রে গ্রামের বাড়ি থেকে অল্প দূরত্বে হসপিটালের কোয়ার্টারেই থাকা হতো। কিন্তু বেশিরভাগ সময় আমি নানবাড়িতেই থাকতাম। দাদার বাড়িতেও থাকতাম, কিন্তু তা [বিস্তারিত]

রাক্ষসের পৃথিবী

 লিখেছেন on আগস্ট ২৯, ২০১৭ at ৮:১৬ অপরাহ্ন  একান্ত অনুভূতি, সমসাময়িক  ১৪ Responses &#১৮৭;
আগস্ট ২৯২০১৭
 
রাক্ষসের পৃথিবী

অন্ধকার নরকের দীর্ঘ শ্মশ্রু প্রেত দলের অধিষ্ঠাত্রী এক রহস্যময়ী রাক্ষসীর বিকট চিৎকারে, সৃষ্টির সেরা মানবকুলের দিক দিশাহীন ছুটে চলা, জ্যোৎস্নালোকিত অজানা প্রান্তরের দিকে। পথে অথৈই সাগর, কখনো বা রোমান যুগের দ্বি-ধার তলোয়ারের মতো এ্যালিফ্যান্ট ঘাসের বন। মানবতার অস্পষ্ট দৃষ্টি তাদের জন্য দিশার আলো জ্বালেনি। ছুটে চলা বৃদ্ধের চোখে দৃষ্টি নেই, তবু তার আছে এ পৃথিবীর [বিস্তারিত]

জুলাই ০১২০১৭
 

‘ রাজা লক্ষণ সেন ও বখতিয়ার খলজী’ বাংলায় বিভিন্ন সময় বিভিন্ন রাজবংশ শাষন করেছে। বিখ্যাত ঐতিহাসিক ইবনে খালদুনের মতে, যে কোনো রাজবংশের শাষন সময় চার পুরুষের অধীক দেখা যায় নাই। তেমনি বাংলায় পালবংশের পর সেন বংশকে আমরা দেখতে পাই। ধারণা করা হয় পালবংশের অবক্ষয়ের যুগে সেনবংশের উত্থান হয়। সেনরাজারা বাংলার আদিবাসী ছালেন, নাকি বাইরে থেকে [বিস্তারিত]

জুন ২৯২০১৭
 

আষাঢ়ের দিন। ঝুম বৃষ্টিতেই দিনের শুরু ও শেষ হলো। কাঁচঘেরা লাইব্রেরী রুমের সাথে লাগানো বারান্দাটা আমার খুব প্রিয়। রাতের নির্জনতার সাথে একাকার হয়ে মিশে যায়। ফাঁকা অনেকখনি যায়গার উপর সদ্য বেড়ে ওঠা আকাশমনি গাছগুলো তিনতলার এই বারান্দা পার করে ফেলেছে প্রায়। বারান্দার এক কোনে ছোট ছেলের দুই জোড়া পাখি। চমৎকার করে পাশাপাশি শুয়ে একে অপরের [বিস্তারিত]

জুন ২৮২০১৭
 

“চৈতক ও মহারানা” প্রতাপ সিং ছিলেন মেবারের মহারানা উদয় সিং এর পুত্র। মহারানা প্রতাপের কোনো রাজধানী ছিল না। তবু তিনি ছিলেন রাজপুতদের গর্ব ও অহঙ্কারের প্রতীক। ভারতে এখনো তিনি একজন কিংবদন্তীর একজন বীর। তিনি উদয় সিং এর পুত্র হলেও উদয় সিং তার অন্য পুত্র জয়মলকে তার উত্তরাধিকারী করে যান। কিন্তু রাজ্যের সভাসদরা তা মেনে নেননি। [বিস্তারিত]

মৌন শব্দ

 লিখেছেন on জুন ১২, ২০১৭ at ১২:১২ অপরাহ্ন  একান্ত অনুভূতি  ২২ Responses &#১৮৭;
জুন ১২২০১৭
 

জীবন চলার পথে ধ্বংসলীলার মতো যে সময়গুলো পাশ কাটিয়ে যায়, ছুঁয়ে যায় ভেঙে দিয়ে যায় সবকিছু। আমার চোখের অতলস্পর্শ গভীরতায় সে সব দৃশ্যপট ভাষাহীন বাণীর মতো স্তব্ধ হয়ে থাকে, যেন এক নিথর সায়র। আমি যেন শ্মশানের বুকে জ্বলে থাকা কম্পিত ঐ মৃৎ প্রদীপের মতো। হঠাৎ ঝড়ের মাতামাতিতেও নিভু নিভু করেও জ্বলতে থাকি। ,,,,,,,,মৌনতা,,,,,,,, ১২/৬/১৭. প্রিয়তে [বিস্তারিত]