ভোর পাখি

 লিখেছেন on অক্টোবর ১২, ২০১৭ at ৭:৪৪ পূর্বাহ্ন  একান্ত অনুভূতি  Add comments
অক্টো. ১২২০১৭
 

বেশকিছু দিন খেয়াল করছি,দারুণ একটা ছাই রঙা পাখি আমার ব্যাকইয়ার্ডের পাশে একদম একলা আসে।কিছুক্ষণ থাকে তারপর যা,দু-একটা পায়,খেয়ে দেয়ে চলে যায়।আমি ঘুম থেকে উঠি খুব সকালে,মাঝে মাঝে ব্যাকইয়ার্ডে গিয়ে দাঁড়াই,তখন কখনো কখনো দেখি তাকে।আজ আবার দেখলাম,অসম্ভব সুন্দর একটা অহংকার ভাব আছে তার হাঁটার ভেতর,ঠোঁট দিয়ে খাবার তোলার ভেতর একটা নোবিলিটি ভাব আছে।মা যখন আমাদের সাথে আমেরিকাতে থাকেন তখন মা ব্যাকইয়ার্ডে পাখির জন্য কোন না কোন খাবার ছিটিয়ে রাখেন।পাখিরা আসে অতিথির মত একটু দেরি করে কিন্তু এই অভিজাত পাখিটি আসে খুব ভোরে,কেউ জাগার আগে,শুধু আমি জেগে উঠার পরে।পাখিটা সব সময় পশ্চিম থেকে পূব দিকে হেঁটে হেঁটে খায় আর দূরে চলে যায়।আমি কখনো পাখিটার অন্য পাশ দেখতে পারি না,এমন না যে পাখিটি আমাকে দেখলে উড়ে যায় কিংবা দূরে চলে যায়।তার পর ও পাখিটি আমাকে কেমন যেন তার অপর পাশটা আমার থেকে আড়াল করে রাখে মনে হয়।আজ আমি উঠেছিলাম একটু আগে অর্থাৎ সে আসার আগেই।আজ আমি উত্তর মুখি হয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছি একদম চুপচাপ।সে এলো,আমার জানালায় একটু দাঁড়ালো তারপর পশ্চিম থেকে পূবের দিকে আস্তে আস্তে যেতে লাগলো।আজ আমি তার অপর পাশে।সে আমাকে খেয়ালই করছে না,অথচ রোজ আমার দিকে বারে বারে দেখে।আমি এবার আরো একটু এগিয়ে গেলাম।কিন্তু একি? এই অদ্ভুত সুন্দর পাখিটির এ পাশের চোখটি অন্ধ,চোখ ছাড়া পাখিটি দেখতে আর সেই সুন্দর লাগছে না।সেই অহংকারি’ও লাগছে না।আমি আরো কাছে গেলাম,এবার সে আমাকে খেয়াল করলো,একটি চোখ দিয়ে-ই অদ্ভুত এক অভিমান জানান দিলো।প্রিয়ার মত মন খারাপ করলো,তারপর কিছুই না খেয়ে উড়ে চলে গেলো।

পৃথিবীর কোন প্রাণী-ই সব জায়গাতে স্বাচ্ছন্দ বোধ করেনা সবার সামনে। সবার একটা নিজস্বতা আছে,যেটা আমরা বুঝতে পারি না,কারো কাছে মনে হয় অহংকার কারো কাছে নির্বুদ্ধিতা।যে ভাল টুকু তার আছে সেই ভাল টুকুই আসলে সে দেখাতে চাই অথচ আমরা জোর করে তার অন্ধকার দেখতে চাই।

  ৫টি মন্তব্য, “ভোর পাখি”

    
  1. মনটা খুব খারাপ হয়ে গেলো ইলিয়াস ভাই। কেমন জানি ধূসর বিবশতা! :(

    বহুদিন পর এলেন লেখা নিয়ে!

  2. 
  3. মনে কষ্ট আড়াল করে চলতে ছিল । জোর করে না দেখায় ভাল।

  4. 
  5. দারুন এক অবজার্বেশন মাসুদ ভাই,
    আমরা জোর করে অন্ধকার দেখতে চাই।

    পাখিটা ফিরে আসুক আবার ভোরে,

  6. 
  7. শুধু ভালোটুকু নিয়ে সুন্দর দেখলে সে ভালো লাগা বেশিদিন স্থায়ী হয়না। জ্ঞানে অজ্ঞানে তার অন্ধকারটুকু দেখার পরেই তার প্রতি মায়া মমতা বেশি হয়েছে আপনার। ঠিক নয় কি? এটাই ভালোবাসা।
    পাখি অভিমান ভুলে ফিরে আসুক আপনার ব্যাকইয়ার্ডে। এত সুন্দর লেখা পড়লে তবেই দিনের পড়া স্বার্থক হয়।

  8. 
  9. ভালবাসা ভাল লাগার কোন জাত নেই নেই শ্রেনী বিন্যাস।সুন্দর অনুভুতি -{@