একটি রাতের গল্প

 লিখেছেন on আগস্ট ১৭, ২০১৪ at ২:২৭ অপরাহ্ন  একান্ত অনুভূতি, গল্প  Add comments
আগস্ট ১৭২০১৪
 

ছেলেটা গেলো বছর বিয়ে করেছে, অবশ্যই প্রেম করে। এবার এই দম্পতির প্রথম ঈদ। উথাল-পাথাল ভালোবাসা থাকা সত্বেও কিছু ব্যাক্তিগত কারনে এখন পর্যন্ত বউকে নিজের কাছে নিয়ে রাখতে পারেনি। বউ তার বাবার বাসায় থাকে। ট্রাজেডি ঈদে এবার সে একদম একা বাসায়। ছেলেটা ভাবে কি করবে সে ? একদিকে প্রিয়তমা বধু অন্যদিকে মা। অনেক ভেবে সে একটা উপায় বের করলো। এবার ঈদে লম্বা ছুটি পেয়েছে সে, সেটাকে সুষম বন্টনের সিদ্ধান্ত নিলো সে। ঈদের আগেই মায়ের সাথে দেখা করবে আর পুরো ঈদের সময়টা কাটাবে তার বউয়ের সাথে। বাড়ির পথে রওনা দেয় ছেলেটি, বাস চলছে ছেলেটির মন উতলা হয়ে উঠছে।

কল দিলো বউকে… কি করো?
বউঃ“ আমাকে ফোন দিছ কেন? তুমি তো আমার কাছে আসবা না। যাও তোমার বাবার বাড়ি। আমি কে হই তোমার? আমার কোনও দরকার নাই। আমি তো দেখতে সুন্দর না স্লিম না। যাও তোমার মায়ের কাছে গিয়ে ঘুমাও আর ফিডার খাও। আমি তোমাকে চিনি না।“ এক দমে বলে ফেললো মেয়েটি।

ছেলেটিঃ “বাবু আমি আসছি তো মাত্র দু দিন পর অযথাই মন খারাপ করছ।“
বউঃ ‘তুই আসবিনা বলে দিলাম ভাগ, তুই ফোন রাখ’ বলে নিজেই ফোন কেটে দিল।

ছেলেটি আবার ফোন দিল অপাশ থেকে কোনও উত্তর নাই। ৫৬ বার ফোন দেয়ার পর মেয়েটি ফোন ধরল, “তোর জন্য মাংস রান্না করেছি ইলিশ মাছ রান্না করেছি সব একলা খাবো না? একলা খাবো না? এক্ষুনি সব ফেলে দেব। ফোন রাখো আমি ফেলে দিতে গেলাম। বাই। কোন দরকার নাই কথা বলার দুই দিন পর কথা হবে” খট করে ফোন কেটে দিলো মেয়েটি।

সফর অনেক লম্বা প্রায় ১২/১৩ ঘণ্টা…. মাত্র চোখ জুড়িয়ে আসছে। মাথা সিটের উপর এলিয়ে ঘুমোচ্ছে ছেলেটি। হঠাৎ কন্টাক্টারের হাকে ঘুম ভাঙল তার ‘খাবার বিরতি ৩০ মিনিট’। ছেলেটি জানালা দিয়ে তাকিয়ে দেখলো কোথায় আছি। মজার ব্যাপার হলো বাস খাবার বিরতির জন্য থেমেছে একেবারে তার শশুরবাড়ির কাছে। রাত তখন প্রায় ১টা, বউটাও মন খারাপ করে আছে।হঠাৎ বেজে উঠে মুঠোফোন।

বউঃ হ্যালো
বরঃ ওই তাড়াতাড়ি বারান্দায় আসো
বউঃ মানে?
বরঃ আরে জলদি জলদি
বউঃ আসতেছি
নীচে নায়ক দাঁড়িয়ে বউ তার ৪তলার উপরে।
বরঃ তাড়াতাড়ি চাবি ফেলো সময় নাই ।

বউ বিস্ময়ের ঘোর নিয়েই চাবি দিলো। বর তার ১০০মিটার রেস দিয়ে উপরে উঠে এসেই জড়িয়ে ধরলো তাকে। আহ কি প্রেম কি প্রেম। বউ অবাক হয়ে জিজ্ঞাসা করে, “কাহিনী কি?” ছেলেটি বলে বাসায় যাচ্ছি ঠিকই, কিন্তু আমার মন পড়ে আছে তোমার কাছে। তোমাকে একনজর দেখার জন্য দৌঁড়ায় আসছি বউ । ভালো থেকো আমি ২দিন পরেই তোমার কাছে চলে আসবো। তুমি মন খারাপ করো না। যেমন ঝড়ো গতিতে এলো, তেমন ঝড়ো গতিতেই চলে গেল ছেলেটি। মেয়েটা তখনও বারান্দার গ্রীল ধরে দাঁড়িয়ে। ছেলেটি দৌঁড়াতে দৌঁড়াতে একসময় অন্ধকার রাস্তায় মিলিয়ে গেল। মেয়েটি কিছুক্ষন শূন্য রাস্তার দিকে তাকিয়ে চোখ মুছে ঘরে এলো।

ঈদ এবং ঈদি প্যাচালীতে কথা দিয়েছিলাম ‘ ঈদের পরবর্তী আকর্ষণ হিসেবে থাকবে একটি বাস্তব সম্মত রোমান্টিক গল্প। ‘ কথা রেখেছি আমি।

  ৩২টি মন্তব্য, “একটি রাতের গল্প”

    
  1. প্রায় ভাল ছলেদের এমন ঝামেলয় পড়তে হয়।ত্রিকোন আকারে ঝামেলা বউ মা এবং নিজে।গর্ভধারীনি মায়ের কথা না রাখা পাপ আবার বাবার সব বন্ধন ছেড়ে যে মেয়েটি তার ঘরে বউ সেজে এলো তার মন রক্ষা না করলে নিজের অন্তর জ্বলে সমাজের টনক নড়ে।কোন দিকে যাবে ছেলেটি? -{@

  2. 
  3. সত্যিই এমন অবস্তায় ছেলেটি কি করবে।
    গল্পে ছেলেটি যেমনটা করেছে তা ঠিক আছে আমার মনে হয়।

    ভালো লেগেছে -{@

  4. 
  5. বেশ নাটকীয় ভাবে দেখা করিয়ে দিলেন । এ ছবকেও নাটক আছে দেখছি ।
    আমাদের এ টানাপোড়ন নিয়েই বেঁচে থাকতে হয় ।
    পোড়া গন্ধ পেলে কি নাকের দোষ ?

  6. 
  7. ওরে বাবা !! আমি প্রথম পড়ায় বুঝতে পারি নাই,,, আবারও পড়তে হয়েছে,,,কি নাটকীয়তা —- দারুনসসসসসসস !!!!!

  8. 
  9. ছেলের মাকেই এটি বুঝতে হবে, তিনিও একদিন বউ ছিলেন।
    তাঁর যেমন একটি সংসার হয়েছে, ছেলের বৌয়ের ও তেমনি একটি সংসার বানিয়ে দেয়ার দায়িত্ব তাঁর।
    ছেলের বাবার যেমন একটি সংসার আছে, ছেলেরও তেমনি একটি সংসার থাকবে।

    অবশ্য বৌ শাশুড়ির এই টানা পোড়ন নিয়েই আমার এই সংসার।

  10. 
  11. আপনি যা গল্পে বললেন এর কাছাকাছি সত্য ঘটনা আমার জানা আছে ।
    আপনি ভালই লেখেন ।

  12. 
  13. যেনো এক স্বপ্নের কথা জানালেন। গল্পটি ভালো লাগলো।

  14. 
  15. সাবলীল ভাষায় অসাধারন কমেডি আমাকে মুগ্ধ করেছে —– । -{@ (y)

  16. 
  17. হাজার হাজার কস্ট মুছে দেবার জন্যে এমন একটি মূহুর্তই যথেষ্ট তাইনা আপু? সংসারের জটিলতায় ও জড়িয়ে থাকুক গল্পের নায়ক নায়িকা। এমন একটি রাত গুনে গুনে বেড়ে যাক অনেকগুন। শুভ কামনা -{@

  18. 
  19. গল্পের নায়িকার জন্যই কস্ট পেলাম বেশি।
    একটিমাত্র রাত ভুলিয়ে দিল কতো কস্ট।
    গল্পটি পড়ে উদাস হয়ে গেলাম। হ্যাঁ আপু কথা রেখেছে তার। যতোটা রোমান্টিক ভেবেছিলাম তার চেয়ে বেশি হয়েছে। হিরো অনেক রোমান্টিক :)

  20. 
  21. 
  22. 
  23. মাঝে মাঝে মানুষ দো’টানায় পড়ে যায়। কিন্তু ভালবাসা সেই টানে পড়লে বড় বিপাকে পড়তে হয়। তবুও ভালো কিছু সুযোগ কারো কারো বেলায় আসে।

    গল্প নিঃসন্দেহে চমৎকার হয়েছে (y)(y)
    শুভ কামনা থাকলো :)

  24. 
  25. এক কোথায় ফাটাফাটি জমে ক্ষীর

  26. 
  27. এরকম একটু আধটু মিষ্টি ঝগড়াঝাঁটি না থাকলে সংসার হয়ত জমে না। সুন্দর গল্প লিখেছেন।

  28. 
  29. অনেক দিনের বিরহ খরার পর হঠাৎ যেন মেঘ বিহীন এক পশলা বৃষ্টি ।

    তবে বৃষ্টিতে শরীর ভিজেছে মনটা বোধহয় পুরোপুরি ভেজেনি ।

    সুন্দর রোমান্টিক গল্প

  30. 
  31. ্ভাল লেখা। রোম্যান্টিক গল্প। সংসারের মধ্যে ঝগড়া হবেই কিন্তু সন্তানকে বুঝতে হবে সেও একদিন সন্তানের জন্ম দেবে।