অক্টো. ০৫২০১৭
 

আমার জন্ম আমার ভুমি,আমার দেশ,আমার মাটি,আমার বাংলাদেশ; আমার এমন অহংকারে গর্ব করা কেবলি মুক্তি যুদ্ধের অবদান।এ দেশের সব কিছুই আমার আমাদের।সেই দেশের রাজধানী ঢাকা থেকে ১৬ কিলোমিটার পূর্বে নারায়ণগঞ্জ মহানগরীর একটি থানা সিদ্ধিরগঞ্জ ওমর পুর এলাকা যেখানে আম জন্ম হয়েছিলো জন্ম।এ এলাকাটিকে সাধরনতঃ আমরা উপ শহরও বলতে পারি।সিদ্ধিরগঞ্জ বাংলাদেশের নারায়ণগঞ্জ জেলার অন্তর্গত একটি থানা। সিদ্ধিরগঞ্জ  বাংলাদেশের অন্যতম এক ঐতিহাসিক শিল্পনগরী অঞ্চল যা এক সময়কার বিশ্বের সব চেয়ে বড় পাটকল আদমজী জুট মিল ছিলো তদস্থানে এখন এ ইপি জেট হিসাবে বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠছে।এ ছাড়াও রয়েছে পাশা পাশি দেশের বৃহত্তম বিদ্যুত উৎপাদন কেন্দ্র এবং সরকারী খাদ্য রক্ষনাবেক্ষন ও ডেলিভারীর জন্য একটি বিশাল গোডাউন সাইলো রয়েছে।যেখানে একদা হাজারো লোকের কর্মস্থল ছিলো।
সিদ্ধিরগঞ্জের সংক্ষিপ্ত পরিচিতি:
১৮৮২ সালে নারায়ণগঞ্জ কে মহকুমা ঘোষিত হয়,যা ১৯৮৪ সালে জেলায় উন্নীত করা হয়।২০১১ সালের ৫ই মে নারায়ণ গঞ্জ সদরকে সিটি কর্পোরেশন করা হয় ।এই জেলার ৭টি থানার মধ্যে সিদ্ধিরগঞ্জ একটি।আমার মুল ফোকাস এই সিদ্ধিরগঞ্জ থানার দিকে।এ থানায় বিভিন্ন পাড়া মহল্লার মধ্যে পাইনাদী (পূর্ব), মিজমিজি বাতান পাড়া,পাইনাদী (পশ্চিম), মিজমিজি (দক্ষিণ পাড়া),মিজমিজি (পশ্চিম পাড়া),মিজ মিজি (সাহেব পাড়া),ভূঁইয়া পাড়া,আরাম্বাগ,টাক খানা, বাড়ই পাড়া,এনায়েত নগর,ধন কুন্ডা,দক্ষিণ আজিব পুর,সিদ্ধির গঞ্জ কলা বাগ (দক্ষিণ),সিদ্ধিরগঞ্জ কলা বাগ পশ্চিম), সিদ্ধিরগঞ্জ পাওয়ার স্টেশন,সিদ্ধিরগঞ্জ সাইলো,জাল কুড়ি পশ্চিম পাড়া,জাল কুড়ি মধ্য পাড়া,জাল কুড়ি উত্তর পাড়া,কদম তলি উত্তর পাড়া,কদম তলি দক্ষিণ পাড়া,নয়া পাড়া,শিমরাইল,আটি,উত্তর আজিবপুর,শুমিলপাড়া আদমজী ই পি জেড,বাগ পাড়া,মন্ডল পাড়া,নিমাই কাশারি,নয়া আটি,বাগ মারা,সানার পাড় অন্যতম।

নরসিংদীর টোক বর্গী থেকে মুন্সী গঞ্জের মোহনা পর্যন্ত দীর্ঘ ৬৫ মাইল শীতলক্ষ্যা নদী নারায়ণগঞ্জ সিদ্ধিরগঞ্জের ওপর দিয়ে প্রবাহিত।সিদ্ধিগঞ্জ রাজার বরাবর শীতলক্ষ্যা নদীর স্মশানে পাশ দিয়ে চিটাগাং রোড ব্রীজ পর্যন্ত বিস্তৃত আছে একটি সৌন্দর্যময় ১০ ফুটের ইট বিছানো একটি রাস্তা।যার উপর দিয়ে প্রত্যহ স্থানীয় লোক জন প্রাতঃ ভ্রমনে বের হন এবং প্রতিদিন বৈকালেই ভীড় জমে ভ্রমন আর আড্ডাবাজী বিলাসীদের পথচারণায়।স্থানীয় প্রশাসন এলাকাটির দিকে একটু বেশী নজর দিলে হতে পারে সিদ্ধিরগঞ্জ বাসীর জন্য একটি পর্যটন কেন্দ্র।
সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় রয়েছে ৩টি বেসরকারী ও ১টি সরকারী কলেজ, সিদ্ধিরগঞ্জ রেবতী মোহন পাইলট স্কুল এন্ড কলেজ ,সরকারী এম ডব্লিউ কলেজ,গিয়াসউদ্দিন ইসলামিক মডেল স্কুল এন্ড কলেজ,হবিবুল্লাহ্ ইস্টার্ন আইডিয়াল কলেজ।এবং  দুঃখের বিষয় এ অঞ্চলে যোগাযোগের সরকারী টেলিফোনের সকল টেলিফোন লাইনই অকেজু।

স্মৃতি চারণ: সেই বহু কাল আগে আমার চোখে দেখা  সম্ভবতঃ ১৯৮০/৮৫ সালে এ অঞ্চলটি ছিলো প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য মুলক গাছ গাছালিতে ছিলো ভর পুর।আমি ১৯৮০/৮৫ সাল থেকে শুরু করলেও এ অঞ্চলটি মুলত স্বাধীনতার যুদ্ধের পর হতেই প্রকৃতিক সৌন্দর্য্যে ভরপুর ছিলো।শীত লক্ষ্যা নদী দিয়ে চলত বড় বড় পাল তোলা ডিঙি নৌকা,জাহাজ ষ্টিমার চলত যা দিয়ে এ অঞ্চলে ব্যাবসা করতে আসত।আমার তেমন স্বরণ না থাকলেও তখন শীতলক্ষ্যা নদী হতে কংস নামে একটি শাখা নদী ছিলো যা  ৪ আসনের সাবেক এম পি আল হাজ্ব মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন সাহেবের পৈতৃক বাড়ীর পিছন দিয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ পুল দিয়ে প্রবাহিত হয়ে মিজমিজির উপর দিয়ে চলে গেছে।মিজ মিজিতে এখনো এর লেশ আছে যা খালের মতন,প্রবাহিত হয় নোংরা ময়লা পানি ।

পূর্বেই বলেছি এ অঞ্চলে একটি সরকারী খাদ্য গোদাম আছে যাকে অনেকেই সাইলো গোডাউন বলে থাকেন।এই সরকারী প্রতিষ্টানটির যাতায়াতের প্রথম রোডটি ছিলো ওমরপুর রোডের উপর দিয়ে যাকে আমরা বাজার রোড বলে থাকি যা হাটখোলা ভুমি অফিসের একটু সামনে ছিলো তার মেইন গেইট।এই রোড দিয়ে সমানে দুটি ট্রাক অনায়াসে যাতায়াত করতে পারত।এখন এই রোডটি দিয়ে একটি ট্রাক যাতায়াতেই সমস্যা হয়।সাইলো এই রোডের পরিবর্তে রাখী টেক্সটাইলের সামনে দিয়ে একটি নতুন তৈরী হয়।তখন এই নতুন রোডের দু পাশে প্রচুর বড় বড় বৃক্ষ ছিলো যা পরিবেশটাকে সব সময় ঠান্ডা রাখত যা এখন কল্পনাতীত।নাগরীক সভ্যার দ্রুত বিকাশের করলগ্রাসে সবুজ অরণ্যে হলুদের বসবাস ।

যতটুকু জানতে পেরেছি সিদ্ধিরগঞ্জের প্রথম চেয়ারম্যান ছিলেন সিদ্ধিরগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপির সাবেক ক্রীড়া সম্পাদক মরহুম হাবিবুর রহমান হাবিবের পিতা সর্বজন শ্রদ্ধেয় মরহুম আলহাজ্ব মোঃ আমিজ উদ্দিন সাহেব।সে আমাদের নারায়ণগঞ্জ ৪ আসনের সর্বো জনপ্রিয় লিডার জনাব শামীম ওসমানের নানা শশুড়।এছাড়াও আমাদের সিদ্ধিরগঞ্জের  মরহুম আলহজ্ব মোঃ আমিজ উদ্দিন চেয়ারম্যান সাহেব সে সময়কার খুবই জনপ্রিয় চেয়ারম্যান ছিলেন।সিদ্ধিরগঞ্জে এই পরিবারটির রয়েছে একটি সমৃদ্ধ সামাজীক ও অর্থনৈতিক ইতিহাস যা এখানে পর্যায় ক্রমে আলোচলায় আসবেন।
চলবে…

সিদ্ধিরগঞ্জ বাসীদের প্রতি উদাত্ত আহবান:
এ ছাড়াও অত্র অঞ্চলের আরো অনেক গণ্যমান্য ব্যাক্তিদের ভাল মন্দ সব বিষয়ে আলোচনা হবে যা আমার জানা বা কারো সূত্র মতে লেখা হবে। এ ব্যাপারে কারো কাছে কোন সঠিক তথ্য থাকলে আমাকে প্লিজ একটু নক করবেন।আরো সিদ্ধিরগঞ্জের কেমন ছিলো অতীত (১৯৮০ সাল হতে)আমার পক্ষে যতটুকু সম্ভব সঠিক তথ্য সেয়ার করার চেষ্টা করব।অতীতের সামাজীক প্রেক্ষাপটে কারো কোন স্মৃতি মনে পড়লে সেয়ার করুন আমার ফেবুক ইনবক্সে।আমি চাই প্রিয় জন্মভুমিতে জন্মের কিছুটা ঋণ ছিলো তার দায় বদ্ধতায় এ অঞ্চলের সম্মৃদ্ধ ইতিহাস গুলো বলে যেতে চাই।তথ্যদাতা সম্পর্কে ১০০% গোপনীয়তা রাখা হবে এবং আলাপে নাম প্রকাশে ইচ্ছে থাকলে তাও তা করা হবে।
এখানে বলা বাহুল্য এর ধারাবাহিক সবগুলো পোষ্টই প্রথম এই সোনেলায় প্রকাশ হবে।এমন একটি সুযোগ দেয়ার জন্য সোনেলা পরিবারের নিকট আমি আমরা সিদ্ধিরগঞ্জ বাসী কৃতজ্ঞ।
সবাইকে ধন্যবাদ

কৃতজ্ঞতায়:উইকিপিয়া
সিদ্ধিরগঞ্জের মানচিত্র

  ১১টি মন্তব্য, “আমার জন্ম ভুমি:সিদ্ধিরগঞ্জ-০১পর্ব”

    
  1. আমার যেকোনো এলাকার ঐতিহাসিক বিষয়বস্তু ভালো লাগে।
    জুটমিলগুলো বেশিরভাগই বন্ধ হয়ে গেছে। আমাদের খুলনা একসময় গমগম করতো জুটমিলের জন্য।
    স্মৃতিগুলো পড়তে ভালো লাগবে। অপেক্ষায় রইলাম।

  2. 
  3. আমার জন্মভূমি, আমার এলাকা, আমার শহর, আমার গর্ব। আমি আমার এলাকা নিয়ে গর্বিত। গর্বিত সম্মানিত লেখক মনির হোসেন দাদাকে নিয়ে। দাদা, সত্যি আপনার লেখনী প্রশংসনীয় এবং বহু তথ্য সংবলিত। আপনার লেখাটা নারায়ণগঞ্জ সিদ্ধিরগঞ্জ থানা এলাকাবাসীর জন্য খুবই গুরুত্ববহন করে।
    চালিয়ে যান দাদা, লেখুন প্রাণ খুলে। লেখা স্মৃতি হয়ে থাকুক দিনলিপি সোনেলার দিগন্তের পাতায়।

      
    • শুধু উৎসাহ দিলেই চলবে না দাদা আমি জানি গোদনাইল নিয়ে লিখেছেন লিখছেন আপনি।বলতে পারেন আপনার ঐ লেখা দেখেই উৎসাহ পেয়েছি আর গোদলাইন কিন্তু সিদ্ধিরগঞ্জ থানার বাহিরে নয়।তথ্য দেয়া লাগবে যে কোন সত্য সিদ্ধিরগঞ্জ কিংবা গোদনাইল অথবা সিদ্ধিরগঞ্জ থানার যে সব বড় বড় নেতা টাইপের লোক সম্পর্কে আপনি যত টুকু জানেন।প্লিজ দাদা ইনবক্স করবেন।আমি লেখাটি লেখা শুরুর আগে সহযোগিতায় আপনাকে কামনা করেছি।তাই অনুরোধও রইল। -{@

  4. 
  5. আপনার লেখা অনেক পরিপূর্ণ , অনেক জানার, আপনার লেখা পড়ি । আরো লেখা চাই।

  6. 
  7. সর্ব জনপ্রিয় লিডার শামীম ওসমান? :)
    বিখ্যাত ও কুখ্যাত দুজনই কিন্তু খ্যাতনামা :)
    যাই হোক। সিদ্ধিরগঞ্জ সম্পর্কে আরো জানি আপনার লেখার মাধ্যমে। লিখুন।

  8. 
  9. অনেক কিছু জানলাম মনির ভাই।

  10. 
  11. নিজের জন্মস্থান নিয়ে এমন লেখা সবারই দেয়া উচিৎ,
    আমরা আমাদের উৎসকে ভুলে যাই, বা এ সম্পর্কে জানাটা প্রয়োজনীয় মনে করিনা।
    ধন্যবাদ আপনাকে মনির ভাই, এমন পোষ্টের জন্য।